গোপালগঞ্জ থেকে ফরিদপুর ও দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটের বাস বন্ধ

ঢাকাগামী সাধারণ যাত্রীরা বাসস্ট্যান্ডে এসে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। অনেককেই বাসস্ট্যান্ড থেকে বাড়ি ফিরে গেছেন।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Nov 2022, 12:14 PM
Updated : 11 Nov 2022, 12:14 PM

গোপালগঞ্জ থেকে ফরিদপুর ও দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া হয়ে ঢাকা রুটে সব বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন ওই রুটে যাতায়াতকারীরা। 

ফরিদপুরে শনিবার বিএনপির গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই সমাবেশের আগে সেখানে বাস ধর্মঘট ডেকেছেন ফরিদপুর জেলা বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। এছাড়া মাদারীপুর, রাজবাড়ী থেকেও ফরিদপুর রুটের বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন বাস মালিকরা। 

শুক্রবার গোপালগঞ্জ শহরের বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে জানা গেছে, গোপালগঞ্জ থেকে ফরিদপুর হয়ে ঢাকা চলাচলকারী সেবাগ্রিন লাইন, কমফোর্ট, দিগন্ত, গোল্ডেন লাইন, স্টার লাইনের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে ফরিদপুর হয়ে ঢাকাগামী সাধারণ যাত্রীরা বাসস্ট্যান্ডে এসে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। অনেককেই বাসস্ট্যান্ড থেকে বাড়ি ফিরে গেছেন। 

তবে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকার রুটে সব বাস চলাচল করছে। এছাড়া জেলার অন্যান্য সব রুটেও বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। 

শহরের পুলিশ লাইনস মোড়ের কমফোর্ট লাইনের কাউন্টারের ম্যানেজার ইলিয়াছ শেখ জানান, সকাল থেকেই কমফোর্ট লাইনের ফরিদপুর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া হয়ে ঢাকার বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। একটি বাসও ছেড়ে যায়নি। ফরিদপুরে ধর্মঘট ঢাকার কারণে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। 

সেবাগ্রিন লাইনের কাউন্টারের ম্যানেজার রাসেল হাওলাদার বলেন, গোপালগঞ্জ থেকে ফরিদপুর হয়ে ঢাকা রুটের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। যাত্রীরা কাউন্টারে আসলে তাদেরকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। 

জেলা বাস-মিনিবাস শ্রমিক সমিতির সাবেক সভাপতি মো. বুলবুল ইসলাম বলেন, “ফরিদপুরে বিএনপির সমাবেশের কারণে ফরিদপুর রুটের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে পদ্মাসেতু হয়ে ঢাকা-খুলনাসহ অভ্যন্তরীণসহ অন্যান্য রুটে বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।” 

এদিকে, গোপালগঞ্জ থেকে বিএনপির এক হাজারেরও বেশি নেতাকর্মী ফরিদপুরের সমাবেশে যোগ দিবেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। সমাবেশে যোগ দিতে তারা দুই দিন আগেই বিভিন্নভাবে ফরিদপুরের পৌঁছেছেন। 

জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন হীরা মোবাইল ফোনে বলেন, “বাস বন্ধ ও গ্রেপ্তার আতঙ্কের কারণে আমরা আগেই ফরিদপুরের সমাবেশ স্থলে পৌঁছেছি। তবে সবাই একত্রে না এসে নিজ নিজ দায়িত্বে নিজেদের মত করে সমাবেশে যোগ দিয়েছি।” 

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক রাফিক উজ্জামান শরীফ মোবাইল ফোনে জানান, ফরিদপুরে মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে গোপালগঞ্জ জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা আগে থেকেই বিভিন্নভাবে ফরিদপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। 

“বিশেষ করে গ্রেপ্তার আতঙ্কে নেতাকর্মীরা একজোট হয়ে ফরিদপুরের সমাবেশে যেতে পারেনি। জেলার পাঁচটি উপজেলার বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা নিজ নিজ দায়িত্বে ফরিদপুর যান।” 

তিনি বলেন, “আশা করছি জেলা থেকে এক হাজারেরও বেশি নেতাকর্মী ফরিদপুরের সমাবেশে উপস্থিত হবেন।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক