রংপুরে ‘প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায়’ বিয়ে বাড়িতে হামলা

এ ঘটনার পর থেকে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে কনের পরিবার।

রংপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 July 2022, 01:59 PM
Updated : 30 July 2022, 01:59 PM

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় ‘প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায়’ বিয়ের অনুষ্ঠান বানচালে কনের বাড়িতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার উপজেলার সারাই ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে বলে রংপুর মেট্রোপলিটন এলাকার হারাগাছ থানার ওসি রেজাউল করিম জানান।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের কথা জানিয়ে শনিবার তিনি আরও বলেন, মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে।

মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়,স্কুলে যাওয়া-আসার পথে মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করাসহ প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন স্থানীয় এরশাদ মিয়া। বিষয়টি জানতে পেরে দেড় মাস আগে একই উপজেলার এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে মেয়েটিকে বিয়ে দেয় পরিবার।

কনের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানের প্রস্তুতির কথা জানতে পেরে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে এরশাদ ও তার সহযোগীরা এসে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় বাড়ির লোকজনের ওপর হামলা চালানো হয়। এতে কনের দাদা-দাদি ও দুই চাচা গুরুতর আহত হন। তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

কনের নানা বলেন,“বিয়ে করতে না পেরে এলাকার প্রভাবশালী পরিবারের সন্তান এরশাদ মিয়া আমার নাতনিকে অপহরণের উদ্দেশে বিয়ে বাড়িতে এসেছিল। বাধা দিলে তারা হামলা চালায়। বিষয়টি থানায় জানিয়েছি। কিন্তু পুলিশ এসে দুই পরিবারের সঙ্গে কথা বলে চলে গেছে।

“আমরা এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ঘটনার পর ভয়ে বরপক্ষ অনুষ্ঠানে আসেনি।”

মেয়েটির বাবা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন,“আমার মেয়েকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো এরশাদ। নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে তাড়াহুড়ো করে মেয়েকে অন্যত্র বিয়ে দিই। এ কারণে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে বিয়ে বাড়িতে হামলা চালায়। আমি গরিব মানুষ, আমি এর বিচার চাই।”

এরশাদ মিয়ার ভাষ্য,“মেয়েটির পরিবার আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এতে অনেকে আহত হয়েছেন। এ বিষয়ে আমরা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক