হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ৯ মাসে ১৪ হাজার ছাড়াল

গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে রোগী ভর্তি হয়েছেন ৪৮২ জন, মারা গেছেন ৩ জন।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Sept 2022, 01:41 PM
Updated : 26 Sept 2022, 01:41 PM

ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে হাসপাতালে গেলেন আরও ৪৮২ জন, তাদের নিয়ে এ বছর চিকিৎসালয়ে যাওয়া রোগীর সংখ্যা ১৪ হাজার ছাড়াল।

 গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু রোগীদের মধ্যে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের নিয়ে এই বছরে এইডিস মশাবাহিত এই রোগে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে হল ৫৩।

বাংলাদেশে ডেঙ্গু সবচেয়ে ভয়াবহ হয়ে উঠেছিল কোভিড মহামারী হানা দেওয়ার ঠিক আগের বছর ২০১৯ সালে। সে বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১ লাখ ১ হাজার ৩৫৪ জনকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল, মৃত্যু হয়েছিল ১৬৪ জনের।

এ বছরএ পর্যন্ত সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা ১৪ হাজার ৩৬২ জন বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সোমবার জানিয়েছে।

এর মধ্যে চলতি সেপ্টেম্বর মাসেই সবচেয়ে বেশি ৮ হাজার ১৮১ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সর্বাধিক ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে এ মাসে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি রোগীর মধ্যে ৩২৮ জন ঢাকার শহরের। ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৫৪ জন রোগী।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা মহানগরের বাইরে ভর্তি রোগীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৫০ জন খুলনা বিভাগের।

এছাড়া এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় ৪৪ জন, ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় ২০ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩ জন, রাজশাহী বিভাগে ২৩ জন এবং বরিশাল বিভাগে ১৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন গত ২৪ ঘণ্টায়। গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে কোনো রোগী ভর্তি হয়নি।

বর্তমানে সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ১ হাজার ৬৯২ রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১ হাজার ২৯৪ জন। অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩৯৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের সবাই ঢাকার। তাদের একজন মিটফোর্ড হাসপাতালে, একজন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে এবং একজন ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

বর্ষাকাল এলেই ডেঙ্গু রোগের জীবাণুবাহী এইডিস মশার উৎপাত বাড়ে। এ সময় এই মশার দংশনে আক্রান্ত হয়ে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যাও বাড়ে। তবে ডেঙ্গু রোগী ধরা পড়ছে বছরের সব সময়ই। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, জানুয়ারি মাসে ১২৬ জন, ফেব্রুয়ারি মাসে ২০ জন, মার্চে ২০ জন, এপ্রিল মাসে ২৩ জন, মে মাসে ১৬৩ জন, জুন মাসে ৭৩৭ জন, জুলাই মাসে ১ হাজার ৫৭১ জন এবং অগাস্ট মাসে ৩ হাজার ৫২১ জন রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

২৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। অগাস্ট মাসে ১১ জন, জুলাই মাসে ৯ জন এবং জুন মাসে একজনের মৃত্যু হয়েছে ডেঙ্গুতে।

দেশে ২০১৯ সালের পর হাসপাতালে সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু রোগী পাওয়া গিয়েছিল ২০২১ সালে। সে বছর২৮ হাজার ৪২৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল, মারা যান ১০৫ জন।

এছাড়া ২০১৮ সালে ১০ হাজার ১৪৮ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়, মৃত্যু হয় ২৬ জনের। ২০২০ সালে ১ হাজার ৪০৫ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক