‘যাপিত জীবনে’ আফজাল হোসেনে মুগ্ধ রোকেয়া প্রাচী

সরকারি অনুদানে নির্মিত হচ্ছে তারকাবহুল এই সিনেমা।

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Dec 2022, 04:17 AM
Updated : 3 Dec 2022, 04:17 AM

দেশ ভাগ ও ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে সরকারি অনুদানে নির্মিত সিনেমা ‘যাপিত জীবন’-এ প্রথমবারের মতো জুটিবদ্ধ হয়েছেন আফজাল হোসেন ও রোকেয়া প্রাচী।

সেলিনা হোসেনের উপন্যাস অবলম্বনে সিনেমাটি পরিচালনা করছেন অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনার বাবা হাবিবুল ইসলাম হাবিব। চিত্রনাট্য করেছেন অনিমেষ আইচ ও ইমতিয়াজ হৃদয়। রাজবাড়ির গোয়ালন্দ উপজেলায় চলছে সিনেমাটির শুটিং।  

এ সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী আফজাল হোসেনের কাজে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন প্রাচী।

এই অভিনেত্রী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “দেশভাগ ও ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে সিনেমার গল্প। আমার কাছে এ সিনেমায় কাজ করার বিষয়টি এখনো স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে। কারণ এখানে আমাদের সবার প্রিয়, শ্রদ্ধেয় আফজাল ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করছি।

“তার সঙ্গে কাজ করা সত্যিই অনেক বড় একটি ব্যাপার, আর নিজের জন্য অভিজ্ঞতারও বিষয়। তিনি এত বড় মাপের একজন অভিনেতা, অথচ শুটিংয়ের সময় কী দারুণ সহযোগিতা করেন! আমি মুগ্ধ হচ্ছি বারবার। আফজাল ভাইয়ের প্রতি পরম শ্রদ্ধা রইল।”

পাশাপাশি ‘যাপিত জীবন’ নিয়ে প্রাচী বলেন, “হাবিব ভাইও কাজটি ভীষণ মনোযোগ দিয়ে করছেন। গল্প অনুযায়ী লোকেশন নির্বাচন, সবাইকে একসঙ্গে নিয়ে কাজ করার মাঝে দারুণ সমন্বয় হয়েছে। আমি, ডলি আপা, রওনক, বর্ষণ, ভাবনা, মিলি ও আফজাল ভাই, সবাই মিলে আমরা একটি চমৎকার সিনেমার কাজ করছি। আরেকটি কথা না বললেই নয়, সাধারণত সিনেমায় আমরা যে ধরনের বাবা-মা দেখে অভ্যস্ত, তার থেকে ব্যতিক্রম দেখা যাবে এ গল্পে আমাকে ও আফজাল ভাইকে।”

সিনেমাটি নিয়ে আফজাল হোসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সিনেমায় আমার চরিত্রের নাম সোবহান। আমি রোকেয়া প্রচীর স্বামীর চরিত্র করছি। তার চরিত্রের নাম আফসানা। রোকেয়া প্রাচীর সঙ্গে এই প্রথম কাজ। পারিবারিক একটি গল্প। সিনেমাটি নির্মাণও হচ্ছে পারিবারিক আবহে। কাজ করে ভীষণ ভালো লাগছে। সবকিছু দারুণভাবে এগোচ্ছে। আমার বিশ্বাস খুব ভালো একটা নির্মাণ হতে যাচ্ছে জাপিত জীবন।”

নির্মাতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, আফজাল হোসেন ও রোকেয়া প্রাচী ছাড়াও সিনেমার গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন আশনা হাবিব ভাবনা। তার চরিত্রের নাম আনজুম।

ভাবনার অন্তর্ভুক্তি নিয়ে নির্মাতা হাবিবুল ইসলাম বলেন, “এই সিনেমার জন্য ভাবনাকেই প্রয়োজন বলে মনে করছি। অভিনয় জানা একজন অভিনেত্রী দরকার। ভাবনাকে দেখেছি কাজ করতে গিয়ে সে রিসার্চ করে, কাজটার জন্য সময় নিয়ে নিজেকে প্রস্তুত করে- যা অনেক তারকাই করেন না। ভাবনা চরিত্রের ভেতরে ঢুকে গিয়ে অভিনয় করে। আমার মনে হয়েছে এই চরিত্রে যদি ভাবনাকে পাওয়া যায় তাহলে সে চরিত্রটা ভালোভাবে রূপায়ণ করতে পারবে। অভিনেত্রীর জায়গা থেকেই ভাবনাকে সিলেক্ট করেছি, বাবা হিসেবে নয়।”

বাবার পরিচালনায় অভিনয় প্রসঙ্গে ভাবনা বলেন, “‘বাবার সঙ্গে আসলেই কী কাজ করতে পারব? শুরুতে এমন চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু যখন কাজ শুরু করেছি তখন মনে হয়েছে, আরও আগে কেন কাজ করলাম না বাবার সঙ্গে। বাবার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা খুব ভালো। এ কথা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না।”

২০২১-২২ অর্থবছরে ৬০ লাখ টাকা সরকারি অনুদান পাওয়া যাপিত জীবন সিনেমার অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করছেন রওনক হাসান, মৌসুমী হামিদ, গাজী রাকায়েত, আজাদ আবুল কালাম, মামুনুর রশীদ, কাজী হায়াত, সমাপ্তি, ডলি জহুরসহ অনেকে।

নির্মাতা জানান, আফজাল হোসেন ও রোকেয়া প্রাচী আগামী রবি ও সোমবার যাপিত জীবনের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকবেন। এরই মধ্যে আফজাল হোসেন শেষ করেছেন ‘মানিকের লাল কাঁকড়া’ সিনেমার কাজ। রোকেয়া প্রাচী সর্বশেষ পান্থ প্রসাদের নির্দেশনায় ‘সাবিত্রী’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন।

দীর্ঘ বিরতি দিয়ে অভিনেতা, নাটক ও বিজ্ঞাপন নির্মাতা আফজাল হোসেন সিনেমার পাশাপাশি ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও নিয়মিত কাজ করছেন। তার অভিনীত ওয়েব সিরিজ লেডিজ অ্যান্ড জেন্টলম্যান, কারগার, শোধ বেশ প্রশংসিত হয়েছে।  

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক