গোলাপি ‘রাজা বাবু’র দাম হাঁকছে সাড়ে ৫ লাখ টাকা

চট্টগ্রামে কোরবানির হাটে নজর কেড়েছে গোলাপি রঙের একটি মহিষ।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 July 2022, 02:42 PM
Updated : 9 July 2022, 08:14 AM

‘রাজা বাবু’ নামের প্রাণীটির ওজন প্রায় নয় মণ। এর দাম ৫ লাখ টাকা হাঁকা হচ্ছে।

বন্দরনগরীর শাহ আমানত সেতু সংলগ্ন মইজ্জ্যার টেক এলাকার ফেমাস অ্যাগ্রো ফার্মে বিক্রির জন্য রাখা হয়েছে ব্যতিক্রমী মহিষটি।

সোশাল মিডিয়ায় মহিষটির ছবি ছড়িয়ে পড়ার পর কোরবানির পশু ক্রেতাদের পাশাপাশি অনেকেই যাচ্ছেন মহিষটিকে এক নজর দেখার জন্য।

ফেমাস অ্যাগ্রো ফার্মের মালিক মীর সাইফু বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, মহিষটি আট মাস আগে সিলেটের সড়কের বাজার থেকে চট্টগ্রামে আনা হয়েছে।

কোরবানির বাজারে মহিষটির দাম হাঁকা হয়েছে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা। দাম উঠেছে তিন লাখ ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত। সাড়ে চার লাখ উঠলে বিক্রির কথা ভাবছেন সাইফু।

তিনি জানান, সিলেটের সড়কের বাজারের মোকাম থেকে আট মাস আগে তারা ১০৫টি মহিষ চট্টগ্রামে এনেছিলেন। যার মধ্যে চারটি মহিষের রঙ ‘হাল্কা গোলাপি’।

দুটি মহিষ গত মাসে মোহছেন আউলিয়ার ওরসের সময় তিন লাখ ১৫ হাজার টাকা করে বিক্রি করা হয়। আর দুটির মধ্যে একটি বর্তমানে অসুস্থ থাকায় সেটিকে আলাদা রাখা হয়েছে। আর অন্যটি বিক্রির জন্য রাখা হয়েছে।

ফার্মের কর্মচারী সাইফুল ইসলাম জানান, মহিষটিকে প্রতিদিন কয়েকবার গোসল করাতে হয়। পাশাপাশি ভুসি, ছোলা, ঘাসসহ অন্তত ২০ কেজি পরিমাণ খাবার দিতে হচ্ছে।

এ মহিষ দেখতে প্রতিদিন বিভিন্ন বয়সী মানুষ আসছেন জানিয়ে তিনি বলেন, আট মাস আগে মহিষটি আনা হলেও মানুষের মধ্যে তেমন কোনো সাড়া ছিল না। তবে কোরবানির বাজারে অনেকেই মহিষটি দেখে ছবি তোলে। পরে মহিষের খবরটি বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে যায়।

মহিষের রঙ সাধারণত হয় ধূসর। এটি গোলাপি বলেই সবার এটিকে নিয়ে আগ্রহ।

মহিষটির গোলাপি রঙের বিষয়ে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর ও চিকিৎসক শাহাদাত হোসেন শুভ বলেন, “এগুলো দুর্লভ হলেও স্বাভাবিক বিষয়। জিনগত কারণে মহিষটির রঙের পরিবর্তন হয়েছে।”

জিনগত পরিবর্তনের কারণে রঞ্জক পদার্থের তারতম্যের কারণে স্বাভাবিক রঙের চেয়ে ভিন্ন বর্ণ নিয়ে জন্ম নেওয়া প্রাণীদের এলবিনো বলা হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক