টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডারদের শীর্ষে ফিরলেন সাকিব

লম্বা সময় ধরে এক নম্বরে থাকা মোহাম্মদ নবি নেমে গেছেন দুই নম্বরে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 09:01 AM
Updated : 14 Sept 2022, 09:01 AM

এশিয়া কাপে পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে একদমই নিষ্প্রভ ছিলেন মোহাম্মদ নবি। তাতে আইসিসি টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান হারালেন আফগানিস্তান অধিনায়ক। সেই সুযোগে আবার চূড়ায় ফিরলেন সাকিব আল হাসান।

প্রায় এক বছর পর হারানো সিংহাসন ফিরে পেলেন সাকিব। এই সংস্করণে গত বছরের অক্টোবরে সবশেষ শীর্ষে ছিলেন তিনি। বুধবার প্রকাশিত র‍্যাঙ্কিংয়ের হালনাগাদে এক নম্বরে উঠে আসা বাংলাদেশ অধিনায়কের রেটিং পয়েন্ট ২৪৮।

গত বুধবার পাকিস্তানের বিপক্ষে এশিয়া কাপে সুপার ফোরের ম্যাচে নামার আগে ২৫৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ছিলেন নবি। ওই ম্যাচে ব্যাট হাতে গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদ পাওয়ার পর বোলিংয়েও নিতে পারেননি কোনো উইকেট। তাতে ৪ পয়েন্ট হারালেও ছিলেন সবার ওপরেই।

পরদিন ভারতের বিপক্ষেও ব্যর্থ হয়ে শীর্ষস্থান আর ধরে রাখতে পারলেন না নবি। ভারত ম্যাচে অফ স্পিনে ৩৪ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি তিনি। পরে ব্যাটিংয়ে নেমে করেন স্রেফ ৭ রান। ৬ পয়েন্ট হারিয়ে দুই নম্বরে নেমে যাওয়া নবির রেটিং পয়েন্ট এখন ২৪৬।

শ্রীলঙ্কার এশিয়া কাপ জয়ে বড় অবদান রেখে অলরাউন্ডারদের তালিকায় চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছেন ভানিন্দু হাসারাঙ্গা। গত সপ্তাহে সুপার ফোর পর্বে পাকিস্তানের বিপক্ষে লেগ স্পিনে ২১ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন তিনি। পরে দলের জয় সঙ্গে নিয়ে ফেরেন ১০ রান করে।

শিরোপা লড়াইয়ের মঞ্চে ব্যাটে-বলে জ্বলে ওঠেন হাসারাঙ্গা। দলের বিপর্যয়ে করেন ১ ছক্কা ও ৫ চারে ২১ বলে ৩৬ রান। পরে ২৭ রান দিয়ে নেন গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়েও উপরে উঠেছেন হাসারাঙ্গা। তিন ধাপ এগিয়ে তার অবস্থান এখন ষষ্ঠ। এই তালিকায় আগের মতোই সবার ওপরে অস্ট্রেলিয়ার জশ হেইজেলউড।

এছাড়া ৪ ধাপ এগিয়ে ভারতের ভুবনেশ্বর কুমার আছেন ৭ নম্বরে। পাকিস্তানের হারিস রউফের উন্নতি ৯ ধাপ, অবস্থান ২৫তম। তার সতীর্থ মোহাম্মদ নওয়াজ ৭ ধাপ এগিয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ৩৪তম স্থানে।

ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৪ ধাপ এগিয়েছেন বিরাট কোহলি। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬১ বলে ১২২ রানের ইনিংস খেলা ভারতীয় ব্যাটসম্যান আছেন ১৫ নম্বরে। লোকেশ রাহুল ৩০ থেকে উঠে এসেছেন ২৩তম স্থানে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইনালে ৪৫ বলে ৭১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলা ভানুকা রাজাপাকসার অগ্রগতি ৩৪ ধাপ। ক্যারিয়ার সেরা ৩৪তম স্থানে আছেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যানদের তালিকায় আগের মতোই সবার ওপরে মোহাম্মদ রিজওয়ান।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউ জিল্যান্ডের ওয়ানডে সিরিজের শেষ দুই ম্যাচ বিবেচনায় এসেছে এই সপ্তাহের হালনাগাদে। তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ৬১ বলে ১০৫ রানের ইনিংস খেলা স্টিভেন স্মিথ ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৩ ধাপ এগিয়ে এখন ১০ নম্বরে।

উন্নতি করেছেন অ্যালেক্স কেয়ারিও। দুই ধাপ এগিয়ে এই কিপার-ব্যাটসম্যানের অবস্থান ২০তম। নিউ জিল্যান্ডের ফিন অ্যালেন ঢুকেছেন সেরা একশ জনের মধ্যে।

ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় যথারীতি শীর্ষে পাকিস্তানের বাবর আজম। আর বোলারদের মধ্যে নিউ জিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট।

বোলারদের তালিকায় সেরা দশে ঢুকেছেন মিচেল স্টার্ক। এই পেসার ৩ ধাপ এগিয়ে আছেন নবম স্থানে। লেগ স্পিনার অ্যাডাম জ্যাম্পা আছেন ১৫তম স্থানে, উন্নতি ৩ ধাপ। নিউ জিল্যান্ডের ম্যাট হেনরি এক ধাপ এগিয়ে এখন ৮ নম্বরে।

ওয়ানডে অলরাউন্ডারদের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন সাকিব।

ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার সিরিজ নির্ধারণী টেস্টের পারফরম্যান্সও বিবেচনা এসেছে। ওভালে সফরকারীদের হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতে নেয় ইংলিশরা।

দলের জয়ে বল হাতে বড় অবদান রাখেন অলিভার রবিনসন। প্রথম ইনিংসে ক্যারিয়ার সেরা ৫ উইকেটসহ মোট ৭ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হওয়া এই পেসার টেস্ট বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ১১ ধাপ এগিয়ে এখন ১৫তম স্থানে।

বেন স্টোকসের উন্নতি ৩ ধাপ, তিনি আছেন ৩৫ নম্বরে। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়া দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার মার্কো ইয়ানসেন এগিয়েছেন ৮ ধাপ। জায়গা করে নিয়েছেন ২৬তম স্থানে।

বোলারদের তালিকায় আগের মতোই সবার ওপরে অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ১৭ ধাপ এগিয়ে ২৯তম স্থানে অলি পোপ। রান তাড়ায় ৬৯ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলা জ্যাক ক্রলির উন্নতি ১৬ ধাপ, আছেন ৪৮ নম্বরে।

টেস্ট ব্যাটসম্যানদের শীর্ষে আগের মতোই ইংল্যান্ডের জো রুট। অলরাউন্ডারদের তালিকায় সবার ওপরে ভারতের রবীন্দ্র জাদেজা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক