বর্তমানে থেকে ভবিষ্যতে চোখ আফিফের

তরুণ এই অলরাউন্ডারের কাছে বর্তমানে ভালো করাটাই মুখ্য।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 July 2022, 04:29 PM
Updated : 28 July 2022, 04:29 PM

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আর তিন মাসেরও কম সময় বাকি। এখন এই সংস্করণের প্রতিটি সিরিজেই তাই চলে আসছে বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ। তবে সামনে কী আছে, সেসব নিয়ে খুব একটা ভাবতে চান না আফিফ হোসেন। বরং বর্তমানে ভালো করাটাই তরুণ এই অলরাউন্ডারের কাছে মুখ্য বিষয়।

সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে জিম্বাবুয়েতে পৌঁছার পর হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে বৃহস্পতিবার প্রথম দিনের অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ দল। সেখানে কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার বিষয় যেমন আছে, তেমনি টি-টোয়েন্টির সুরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিশ্বকাপের দিকে তাকানোর ব্যাপারও আছে।

এই সংস্করণে এখনও পায়ের নিচে জমিন শক্ত করতে পারেনি বাংলাদেশ। একই অবস্থা আফিফের ক্ষেত্রেও। ৪৪ টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত ১৭.৬৮ গড়ে দুই ফিফটিতে তার রান ৬১৯। স্ট্রাইক রেট ১১৭.২৩।

সবশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে শূন্য রানে আউট হলেও পরের দুই ম্যাচে আফিফ করেন ২৭ বলে ৩৪ ও ৩৮ বলে ৫০।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে জিম্বাবুয়ে সিরিজে তার ভিন্ন কোনো পরিকল্পনা আছে কি? বিসিবির ভিডিও বার্তায় ২২ বছর বয়সী ক্রিকেটার জানালেন নিজের ভাবনা।

“আমি কখনও এত বড় করে ভাবি না যে সামনে কী আছে, আমি শুধু বর্তমানটায় ভালো করার চেষ্টা করি, আমার শতভাগ দেওয়ার চেষ্টা করি।”

সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহদের মতো সিনিয়র ক্রিকেটারদের কেউ নেই টি-টোয়েন্টি সিরিজে। অধিনায়ক করা হয়েছে নুরুল হাসান সোহানকে। তরুণদেরকে তাই নিতে হবে বাড়তি দায়িত্ব। তবে কে আছেন আর নেই, তা নিয়ে আফিফের ভাবনা সামান্যই।

“প্রথমেই বললাম, আমি বর্তমানটা নিয়ে থাকার চেষ্টা করি, আমার ভূমিকাটা পালন করার চেষ্টা করি, আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি, দিন শেষে যাতে আমি বলতে পারি আমি আমার শতভাগ দিয়েছি।”

গত বছর জিম্বাবুয়ে সফরে একমাত্র টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে সব ম্যাচ জিতলেও টি-টোয়েন্টি সিরিজে একটি ম্যাচ হেরেছিল বাংলাদেশ। এবার সব ম্যাচ জয়ের লক্ষ্যের কথা জানালেন আফিফ।

“পরিকল্পনা অবশ্যই জেতার। আমরা চেষ্টা করব এখানে সবগুলো ম্যাচ জেতার।”

হারারেতে আগামী শনিবার শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এরপর তিনটি ওয়ানডে খেলবে দুই দল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক