নাজমুলের ১০ উইকেট, জয়ের দুয়ারে ঢাকা

প্রথম ইনিংসে অল্পতে গুটিয়ে যাওয়া সিলেট বিভাগ দ্বিতীয় ইনিংসেও পারেনি তেমন লড়াই করতে। নাজমুল ইসলাম অপুর ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ছোট লক্ষ্য পাওয়া ঢাকা বিভাগ দাঁড়িয়ে জয়ের দুয়ারে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Oct 2021, 12:06 PM
Updated : 18 Oct 2021, 12:06 PM

জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম স্তরের এই ম্যাচে জয়ের জন্য ঢাকার দরকার স্রেফ ১৮ রান। ৬৬ রানের লক্ষ্য তাড়ায় দলটি সোমবার দ্বিতীয় দিন শেষ করে ৩ উইকেটে ৪৮ রান তুলে।

প্রথম দিনে ২১ উইকেটের পতন দেখা ম্যাচটি শেষ হয়ে যেতে পারত দ্বিতীয় দিনেই। বৃষ্টির কারণে শেষ সেশনে খেলা বন্ধ ছিল বেশ কিছুটা সময়। পরে আবার শুরু হলেও আলোকস্বল্পতায় খেলা শেষ হয়ে যায় আগেভাগে।

সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে এ দিনও উইকেট থেকে সহায়তা পেয়েছেন স্পিনাররা। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৪টি, ম্যাচে ৬৪ রান দিয়ে ১০ উইকেট নিয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ম্যাচে ১০ উইকেট পেলেন তিনি। গত মার্চে জাতীয় ক্রিকেট লিগেই বিকেএসপিতে রংপুর বিভাগের বিপক্ষে ১৫৩ রানে ১০ উইকেট ছিল তার আগের সেরা বোলিং।

ব্যাট হাতে দুই ইনিংসেই ব্যর্থ হয়েছেন ঢাকার অধিনায়ক ও বাংলাদেশ টেস্ট দলের সদস্য সাইফ হাসান।

প্রথম ইনিংসে ৬৭ রানে অল আউট হওয়া সিলেট ১ উইকেটে ৩৫ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শুরু করে। থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি ইমতিয়াজ হোসেন। তাকে ফিরিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে প্রথম শিকার ধরেন নাজমুল। ৭৯ বলে ৬ চারে সিলেট ওপেনার করেন ৪৩ রান।

আগের দিনের আরেক অপরাজিত ব্যাটসম্যান অমিত হাসান যা একটু লড়াই করেন। এক প্রান্ত আগলে রেখে একাই দলকে টানেন তিনি। জাকির হাসান, অলক কাপালি, জাকের আলি ব্যর্থ এবারও। প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ ১৮ রান করা রাহাতুল ফেরদৌস এবার ৫৯ বলে করেন ১৭।

অমিত ফিফটি তুলে নেন ১৫৯ বলে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে তাকে ফিরিয়েই সিলেটের ইনিংস গুটিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ম্যাচে ১০ উইকেট পূর্ণ করেন নাজমুল। ২০৯ বলে ৭ চারে অমিত করেন ৭৬ রান।

প্রথম ইনিংসের মতো এবারও শুভাগত হোমের প্রাপ্তি ৩টি। ব্যাটিংয়ে প্রথম ইনিংসে এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার করেন ফিফটি।

ছোট লক্ষ্য তাড়ায় তৃতীয় ওভারে আব্দুল মজিদের উইকেট হারায় ঢাকা। তাকে বোল্ড করে দেন ইবাদত হোসেন। বেশিক্ষণ টেকেননি আরেক ওপেনার রনি তালুকদারও (২০)। ঢাকা ২ উইকেটে ৩০ রান তোলার পর বৃষ্টিতে বন্ধ হয়ে যায় খেলা।

আবার খেলা শুরু হলে দ্রুতই সাইফকে কট বিহাইন্ড করে ফেরান আবু জায়েদ রাহি। প্রথম ইনিংসে ৪ রানের পর এবার সাইফ ৩১ বলে করেন ১২।

রকিবুল হাসান ৫ ও তাইবুর রহমান ৩ রান নিয়ে তৃতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নামবেন।    

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট ১ম ইনিংস: ৬৭

ঢাকা ১ম ইনিংস: ১৭৬

সিলেট ২য় ইনিংস: ৭১.৪ ওভারে ১৭৪ (আগের দিন ৩৫/১) (ইমতিয়াজ ৪৩, আমিত ৭৬, জাকির ০, কাপালি ৭, জাকের ১০, রাহাতুল ১৭, এনামুল জুনিয়র ৯, আবু জায়েদ ৩, ইবাদত ০, খালেদ ০*; সুমন ৫-২-১৭-০, শুভাগত ২২-৫-৬২-৩, নাজমুল ২৪.৪-৮-৪১-৪, তাইবুর ৬-১-১৪-০, সাইফ ৪-১-৪-০, সালাউদ্দিন ১০-৩-৩২-২)

ঢাকা ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৬৬) ১৮ ওভারে ৪৮/৩ (মজিদ ১, রনি ২০, সাইফ ১২, রকিবুল ৫*, তাইবুর ৩*; ইবাদত ৭-৪-৮-১, খালেদ ২-১-৬-০, আবু জায়েদ ৬-১-১৬-১, রাহাতুল ৩-১-১১-১)

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক