বেড়ানোর নানা ‘অফার’ মিলছে পর্যটন মেলায়

প্রবেশ কুপনের বিপরীতে র‍্যাফেল ড্র বিজয়ীরা পাবেন বিমান বাংলাদেশের সৌজন্যে বিভিন্ন রুটের রিটার্ন টিকেট।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Sept 2022, 06:32 PM
Updated : 29 Sept 2022, 06:32 PM

বেড়ানোর নানা অফার নিয়ে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেশন সেন্টার বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) শুরু হয়েছে নবম ‘এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ার’।

বৃহস্পতিবার এ পর্যটন মেলার উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন।

এ মেলার মাধ্যমে পর্যটনে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো প্রচার-প্রচারণার বিশেষ সুযোগ পাবে জানিয়ে তিনি বলেন, এর মাধ্যমে দেশে পর্যটন শিল্পের নতুন সম্ভাবনার সৃষ্টি হবে।

মেলার চেয়ারম্যান ও পর্যটন বিচিত্রা পত্রিকার সম্পাদক মহিউদ্দিন হেলাল জানান, মেলায় নানা অফারে সাশ্রয়ী মূল্যে পর্যটকদের জন্য ভ্রমণের আগাম বুকিং দেওয়ার সুযোগ থাকবে। কোভিড পরবর্তী এ মেলা নতুনভাবে পর্যটনের দুয়ার খুলবে বলে তার আশা।

মেলায় বাংলাদেশ ছাড়াও নেপাল, থাইল্যান্ড, ভারত, ভুটান, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কা ও লিথুনিয়াসহ ১৩০টি দেশের বিভিন্ন পর্যটন সংস্থা অংশ নিয়েছে। বিভিন্ন ধরনের ভ্রমণের অফারের পাশাপাশি এয়ারলাইন্স টিকেট, হোটেল-রিসোর্ট ভাড়ায় ছাড় দিচ্ছে সংস্থাগুলো।

১ অক্টোবর পর্যন্ত চলা এ মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে খোলা থাকবে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত।

মেলার প্রবেশ ফি রাখা হয়েছে ৩০ টাকা। প্রবেশ কুপনের বিপরীতে অনুষ্ঠেয় র‍্যাফেল ড্র বিজয়ীরা পাবেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সৌজন্যে ঢাকা-টরেন্টো-ঢাকা টিকেট, ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা টিকেট ও ঢাকা-দিল্লি-ঢাকা টিকেট।

এছাড়া প্রতিটি টিকেটেই থাকছে মেলার এন্টারটেইনমেন্ট পার্টনার ফ্যান্টাসি কিংডমে প্রবেশে ৫০ শতাংশ ছাড়।

পর্যটন বিচিত্রা পত্রিকার উদ্যোগে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, পর্যটন করপোরেশন ও পর্যটন বোর্ডের সহযোগিতায় এ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এ আয়োজনের এয়ারলাইন্স পার্টনার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স মেলায় ১১টি আন্তর্জাতিক রুটের টিকেটে ১৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। এই রুটগুলো হচ্ছে ঢাকা থেকে টরন্টো, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, আবুধাবি, শারজাহ, দুবাই, দোহা, কাঠমাণ্ডু, কোলকাতা ও দিল্লি।

মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান আলি কদর, ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব) এর সভাপতি শিবলুল আজম কোরেশী, ঢাকায় থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত মাকাওয়াদে সুমিতমোর, নেপালের রাষ্ট্রদূত ঘনশ্যাম ভান্ডারিসহ কয়েকটি দূতাবাসের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক