চীনের সাবেক উপ-জননিরাপত্তা মন্ত্রীর আজীবন কারাদণ্ড

আদালত সাবেক এ মন্ত্রীকে একটি স্থগিত মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে যা দুই বছর পর আজীবন কারাদণ্ড হিসেবে পরিবর্তিত হবে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Sept 2022, 08:57 AM
Updated : 23 Sept 2022, 08:57 AM

চীনের সাবেক উপ-জননিরাপত্তা মন্ত্রী সান লিজানকে ঘুষ লেনদেন ও অন্যান্য অপরাধে আজীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার দেশটির একটি আদালত সানকে এ দণ্ড দিয়েছে বলে রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা শিনহুয়া জানিয়েছে।

আদালত জানিয়েছে, তার অপরাধের মধ্যে মোট ৯ কোটি ১০ লাখ ডলার ঘুষ প্রদান ও গ্রহণ, স্টক মার্কেটে কারসাজি ও অবৈধভাবে দুটি আগ্নেয়াস্ত্র রাখা অন্যতম।

সানকে (৫৩) একটি স্থগিত মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে যা দুই বছর পর আজীবন কারাদণ্ড হিসেবে পরিবর্তিত হবে আর তিন প্যারোলের কোনো সুযোগ পাবেন না। 

জানুয়ারিতে চীনের জননিরাপত্তা মন্ত্রণালয় এক বৈঠকে সানের নিন্দা করে তার ‘রাজনৈতিক চক্রের’ বিষাক্ত প্রভাব মুছে ফেলার প্রত্যয় জানায়। ২০২০ পর্যন্ত সান এ মন্ত্রণালয়টির উপমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন।

চলতি সপ্তাহে মন্ত্রণালয়টির বেশ কয়েকজন কর্মকর্তাও দীর্ঘ মেয়াদী কারাদণ্ড পেয়েছেন। এই কর্মকর্তাদের সানের ‘রাজনৈতিক চক্রের’ সদস্য বলে বর্ণনা করেছে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম সিসিটিভি।

তাদের মধ্যে সাবেক বিচারমন্ত্রী ফু ঝেংহুয়া (৬৭) এবং সাংহাই, চংকিং ও শানজি প্রদেশের তিন সাবেক পুলিশ প্রধানকও আছেন।

তিন সপ্তাহ পর চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি তাদের কংগ্রেস করতে যাচ্ছে। সাধারণত ৫ বছর পরপরই এ কংগ্রেস হয়, যাতে নীতিনির্ধারণী সিদ্ধান্ত নেওয়ার পাশাপাশি ঠিক হয় নতুন নেতৃত্ব।

এবারের কংগ্রেসেও প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-ই দলের শীর্ষ নেতা হিসেবে পুনর্নির্বাচিত হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার নেতৃত্বে থাকা নিশ্চিত করতে সংবিধানে পরিবর্তনও আনা হয়েছে।

কংগ্রেসের আগে দলে শি-র অনুগত নন এমন ব্যক্তিদের ওপর দমনপীড়ন ও চাপ বাড়ছে, তারই অংশ হিসেবে সানসহ অন্যদের সাজা মিলছে বলে অনেকের ধারণা।

আরও পড়ুন:

Also Read: ঘুষ: আমৃত্যু কারাগারে থাকতে হবে চীনের সাবেক বিচারমন্ত্রীকে

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক