লিওঁর মাঠে ঘুরে দাঁড়িয়ে হার এড়াল পিএসজি

ম্যাচ জুড়ে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমজমাট লড়াই চলল। উভয় পক্ষই সুযোগ পেল অনেক, কিন্তু কাজে লাগাতে পারল খুব কম। ম্যাচের শুরুতে পাওয়া গোলে দারুণ জয়ের সম্ভাবনা জাগাল অলিম্পিক লিওঁ। কিন্তু ব্যবধান ধরে রাখতে পারল না তারা। শেষ দিকে গিয়ে হার এড়াল পিএসজি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Jan 2022, 09:40 PM
Updated : 9 Jan 2022, 10:33 PM

লিওঁর মাঠে রোববার রাতে লিগ ওয়ানের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। লুকাস পাকেতার গোলে পিএসজি পিছিয়ে পড়ার পর সমতা টানেন টিলো কেরার।

কোভিড থেকে সেরে উঠলেও ধকল কাটিয়ে উঠতে না পারায় ছিলেন না লিওনেল মেসি। আর নেইমার তো চোটে আগে থেকেই বাইরে। দুই তারকার অনুপস্থিতিতেও আক্রমণে আধিপত্য করে পিএসজি। পুরো ম্যাচে বল দখলে অনেক এগিয়ে থেকে তারা গোলের উদ্দেশ্যে ১৫ শট নেয়, যদিও লক্ষ্যে রাখতে পারে মাত্র তিনটি। আর স্বাগতিকদের ১১ শটের চারটি ছিল লক্ষ্যে।

লিগে এই নিয়ে শেষ পাঁচ রাউন্ডে চারটিতে পয়েন্ট হারাল মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল।

আসরে প্রথম দেখায় গত সেপ্টেম্বরে ঘরের মাঠে লিঁওকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল পিএসজি।

ডিসেম্বরে চার ম্যাচের তিনটিতে ড্র করা পিএসজি এদিন শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে। ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে গোলরক্ষক কেইলর নাভাস প্রতিপক্ষের মিডফিল্ডার হুসেমের শট ঝাঁপিয়ে ফেরালেও দুই মিনিট পর আর পারেননি।

মাঝমাঠ থেকে সতীর্থের থ্রু পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন পাকেতা। ঝাঁপিয়ে পড়েও বলের নাগাল পাননি নাভাস। সেপ্টেম্বরের ওই ম্যাচেও এই ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল লিওঁ।

২১তম মিনিটে গোল পেতে পারতো পিএসজি। তবে লেয়ান্দ্রো পারেদেসের শটে শেষমুহূর্তে সামান্য বাঁক খাওয়া বল ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক অঁতনি লোপেস। তিন মিনিট পর বক্সের বাইরে থেকে মার্কিনিয়োসের শট একজনের পায়ে লেগে উঁচু হয়ে গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে লক্ষ্যেই ছিল, কোনোমতে এক হাত দিয়ে বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠান লোপেস।

৪২তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোল পায়নি পিএসজি। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল লিওঁর রক্ষণ ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে ফাঁকায় পেয়ে যান এমবাপে। তার শট দূরের পোস্টে প্রতিহত হয়। 

বিরতির পর কয়েকটি ভালো আক্রমণ করে পিএসজি; কিন্তু উল্লেখযোগ্য কিছু করতে পারেনি তারা। ৫৯তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে দারুণ সুযোগ পায় লিওঁ। তবে মুসা দেম্বেলের শট ঝাঁপিয়ে ফেরান নাভাস। আলগা বল সতীর্থের পা ঘুরে পেয়ে হুসেমের নেওয়া শট রক্ষণে প্রতিহত হয়।

অনেক চেষ্টার পর ৭৬তম মিনিটে সমতায় ফেরে পিএসজি। ডি-বক্সে ডান দিকে ফাঁকায় বল পেয়ে টিলো কেরারের নিচু শট পা বাড়িয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করেন গোলরক্ষক, তার পায়ে লেগেই বল চলে যায় জালে।

তিন মিনিট পর ফের এগিয়ে যেতে পারতো লিওঁ। তবে ডান দিক থেকে রায়ান চের্কির শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। একটু পর আবারও এমবাপের পথে দুর্ভাগ্য বাঁধ সাধে। বাঁ দিক থেকে তার বাঁকানো ফ্রি কিক দূরের পোস্টে লাগে।

মূল্যবান দুটি পয়েন্ট হারালেও লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান মজবুতই থাকছে পিএসজির। ২০ ম্যাচে ১৪ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে তাদের পয়েন্ট ৪৭। ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নিস। 

মৌসুমে খুব খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাওয়া লিওঁ ১৯ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে ১১ নম্বরে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক