'ভালো না খেলেও' জিতে স্বস্তি আর্জেন্টিনা কোচের

বড় দলগুলোর একটি বিশেষ দিক, নিজেদের খারাপ দিনেও অনেক সময় তারা কোনোভাবে ম্যাচ বের করে নিতে জানে। এই আর্জেন্টিনা যেমন দেখাল আরেকবার। লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে উরুগুয়ের বিপক্ষেও ছন্দে না থেকেও তারা আদায় করে নিয়েছে পুরো পয়েন্ট। নিজ দলের খেলায় মন না ভরলেও কোচ লিওনেল স্কালোনি স্বস্তি পাচ্ছেন ম্যাচ থেকে তিন পয়েন্ট পেয়ে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Nov 2021, 09:37 AM
Updated : 13 Nov 2021, 09:37 AM

মন্তেভিদিওতে বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোরে শুরু হওয়া ম্যাচটিতে ১-০ গোলে জিতেছে আর্জেন্টিনা।

এই জয়ে লাতিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে কাতার বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার অনেকটাই কাছাকাছি পৌঁছে গেছে বর্তমান কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা।

১২ ম্যাচে চার ড্রয়ে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে তারা। ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা ব্রাজিল ইতিমধ্যেই নিশ্চিত করে ফেলেছে বৈশ্বিক আসরের টিকিট।

প্রতিপক্ষের মাঠে জয় পেতে এ দিন কঠিন পরীক্ষা দিতে হয় আর্জেন্টিনাকে। পুরো ম্যাচেই তাদের রক্ষণকে চাপে রেখে একের পর এক আক্রমণ শানায় উরুগুয়ে। তবে ম্যাচের শুরুর দিকে আনহেল দি মারিয়ার করা গোল শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারে আর্জেন্টিনা।

 ঘাম ঝরানো এই জয়ে ম্যাচ শেষে স্কালোনির কণ্ঠে ফুটে উঠল স্বস্তির সুর।

"কখনও কখনও স্রেফ জয়টাই মুখ্য এবং আমরা সেটা করতে পেরেছি। অবশ্যই আমরা ভাল খেলতে পারিনি, তবে জয় তো জয়ই।”

শুরুতে পিছিয়ে পড়লেও ছেড়ে কথা বলেনি উরুগুয়ে। হাল ছাড়েনি লড়াইয়ে। দুই অর্ধেই প্রতিপক্ষের রক্ষণের কঠিন পরীক্ষা নেয় দলটি।

৩২তম মিনিটে সাবেক বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেসের শট গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও পোস্টে লেগে ফিরে আসে। দ্বিতীয়ার্ধের শেষের দিকে আলভারেস মার্তিনেসের হেড ক্রসবারের একটু ওপর দিয়ে গেলে বেঁচে যায় হাফ ছেড়ে বাঁচে আর্জেন্টিনা।

এর মধ্য দিয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সবশেষ ২৬ ম্যাচে অপরাজিত আছে স্কালোনির দল, যার শুরুটা হয়েছিল ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে।

ম্যাচ শেষে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওতামেন্দি প্রাপ্য কৃতিত্ব দিলেন প্রতিপক্ষকে। কোচের মতো তিনিও বললেন তিন পয়েন্টের স্বস্তির কথা।

"তারা আমাদের উপর চাপ সৃষ্টি করেছিল, তাদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে, কিন্তু আমরা ভাগ্যবান যে আমাদের অপরাজিত থাকার পথচলাটা ধরে রাখতে পেরেছি এবং তিনটি পয়েন্ট অর্জন করেছি।"

"আমরা জানি এখানে খেলা কতটা কঠিন এবং আমরা জানতাম যে তারা (এই ম্যাচটি) জিততে মরিয়া ছিল। ওর যখন আমাদের চাপে ফেলেছে, তখন আমাদের শক্ত হতে হয়েছে। শেষ পর্যন্ত আমরা জাল অক্ষত রাখতে সমর্থ হয়েছি।"

পরের রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় আগামী বুধবার ভোরে দেশের মাঠে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের মুখোমুখি হবেন মেসি-দি মারিয়ারা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক