‘অভিশপ্ত’ ৯ নম্বর জার্সি চেলসিতে ছুঁতে চান না কেউই

চেলসিতে ৯ নস্বর জার্সি নিতে সঙ্কোচ সবারই, বলছেন কোচ টমাস টুখেল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 August 2022, 07:59 AM
Updated : 6 August 2022, 07:59 AM

মাত্রই ঘটা করে রর্বেত লেভানদোভস্কিকে ৯ নম্বর জার্সি তুলে দিল বার্সেলোনা। সব দলেই এই জার্সি কাঙ্ক্ষিত থাকে ফরোয়ার্ডদের কাছে। এই জার্সিকে মনে করা হয় ভরসা, আস্থা ও গর্বের প্রতীক। অথচ চেলসিতে এই জার্সি ছুঁয়েও দেখতে চান না কেউ! কোচ টমাস টুখেল বললেন, তার দলে এই জার্সিকে ঘিরে আছে কুসংস্কার। সেই ভাবনায় এমনকি সায়ও আছে চেলসি কোচের!

এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শনিবার শুরু হচ্ছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চেলসির নতুন মৌসুম। বিস্ময়করভাবে, ক্লাবের ৯ নম্বর জার্সি এখনও ফাঁকা। ধারণা করা হচ্ছিল, নতুন কোনো ফরোয়ার্ডকে আনা হবে বলেই এই জার্সি এখনও কাউকে দেওয়া হয়নি। বিশেষ করে, বার্সেলোনা থেকে পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং চেলসিতে আসতে পারেন বলে গুঞ্জন আছে।

তবে মৌসুম শুরুর আগে টুখেল অকপটে বললেন, একটি কুসংস্কারের কারণেই ৯ নম্বর জার্সি এখনও ফাঁকা এবং সেই কারণ তার কাছে বোধগম্যই।

“ছেলেরা আমাকে বলে এটা অভিশপ্ত…এমন নয় যে ট্যাকটিকাল কোনো কারণে আমরা এই জার্সি ফাঁকা রেখেছি। বিস্ময়করভাবে, কেউ এটা ছুঁয়ে দেখতে চায় না। এখানে যারাই আমার চেয়ে বেশি সময় ধরে আছে, তারা সবাই বলে, ‘আহ, জানেন না, অমুক ৯ নম্বর জার্সিকে খেলেছে এবং গোল করতে পারেনি। তমুক ৯ নম্বর পরে খেলেছে, স্কোর করতে পারেনি।’ সবাই এসব কথা বলে।”

“এই মুহূর্তে তাই কেউই ৯ নম্বর জার্সি নিতে চায় না। আমিও কুসংস্কারে বিশ্বাস করি, তাই ভালোভাবেই বুঝতে পারি, কেন ছেলেরা এটা না নিয়ে অন্য জার্সি নিতে চায়।”

চেলসিতে সবশেষ ৯ নম্বর জার্সিতে খেলেছেন রোমেলু লুকাকু। গত বছর চেলসির রেকর্ড ৯ কোটি ৭৫ লাখ পাউন্ডে দলে এলেও তিনি প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি একটুও। উল্টো কোচের সঙ্গে মনোমালিন্য দিয়ে খবরের শিরোনাম হয়েছেন। অবশেষে তিনি ফিরে গেছেন ইন্টার মিলানে, যেখানে তিনি ছিলেন দারুণ সফল।

এছাড়া নানা সময়ে এরনান ক্রেসপো, ফের্নান্দো তোরেস, রাদামেল ফালকাও, গনসালো হিগুয়াইনের মতো স্ট্রাইকাররা চেলসিতে ৯ নম্বর জার্সিতে আপন আলোয় উদ্ভাসিত হতে পারেননি। লুকাকুর আগে আলভারো মোরাতা অনেক সম্ভাবনা নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে চেলসিতে এসে ৯ নম্বর জার্সিতে পারেননি ছাপ রাখতে।

জার্সির কাহিনী খোলাসা করার পাশাপাশি আরেকজন ফুটবলারকে দলে আনার সম্ভাবনাও জিইয়ে রাখলেন টুখেল।

“হয়তো আমরা আরেকজন ফুটবলারকে আনতে পারি, হয়তো নয়… আমাদের সুযোগ আছে আনার, তবে আমরা এটাও জানি সামনে কত খেলা আসছে। তো দেখা যাক, এখনও আরেকজন ফুটবলারকে দলে আনতে পারি কিনা…।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক