ঝিনাইদহে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যায় ৯ জনের যাবজ্জীবন

২০১১ সালে ঘটনার পাঁচ দিন পর গ্রামবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Sept 2022, 11:39 AM
Updated : 27 Sept 2022, 11:39 AM

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বিষয়খালীতে নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে নয় জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছে আদালত। 

মঙ্গলবার ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মো. মিজানুর রহমান এ আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) বজলুর রহমান। 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- সদর উপজেলার বিষয়খালী গ্রামের মো. রসুল, আমিরুল ইসলাম, জাহিদুল ইসলাম, আজিজুর রহমান, বাদশা মিয়া, বাতেন,  গোলাম রসুল,  শরিফুল ইসলাম ও আব্দুল আজিজ।  

এদের মধ্যে আমিরুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম পলাতক। 

মামলার নথির সূত্রে পিপি বজলুর রহমান জানান, বিষয়খালী গ্রামের রেনু বেগম ঝিনাইদহ শহরের হামদো এলাকায় একটি ডাল মিলে কাজ করতেন। 

২০১১ সালে ৮ মার্চ কাজ শেষে রাতে বিষয়খালী গ্রামে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে আসামিরা তাকে অপহরণ করে বাঁশ বাগানে নিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে যায়। 

ঘটনার পাঁচ দিন পর ১৩ মার্চ গ্রামবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। ওই দিনই নিহত নারীর স্বামী আরব আলি ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলা করেন। 

পুলিশ তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। 

আইনজীবী আরও জানান, যাবজ্জীবন ছাড়াও প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও চার মাস করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক