বস্তির কিশোর-কিশোরীদের স্বাবলম্বী করতে প্রশিক্ষণ

  • কোভিড মহামারীর শুরুতেই পড়াশোনার ইতি টানা সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া হাফসা দুই মাস ধরে সেলাই শিখছে। চায়ের দোকানি বাবার তিন মেয়ের দ্বিতীয় সন্তান সে। ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশন থেকে বছরে হাফসার মতো প্রায় ১০০ জন সুবিধাবঞ্চিত কিশোর-কিশোরী প্রশিক্ষণ নেয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    কোভিড মহামারীর শুরুতেই পড়াশোনার ইতি টানা সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া হাফসা দুই মাস ধরে সেলাই শিখছে। চায়ের দোকানি বাবার তিন মেয়ের দ্বিতীয় সন্তান সে। ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশন থেকে বছরে হাফসার মতো প্রায় ১০০ জন সুবিধাবঞ্চিত কিশোর-কিশোরী প্রশিক্ষণ নেয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • কড়াইলের ট্রেইনিং সেন্টারে এক মাস ধরে সেলাই শিখছে সামিয়া আক্তার। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এই বছর জুনে পড়াশোনার ইতি টানতে হয়েছে নবম শ্রেণির এই শিক্ষার্থীকে। পাঁচজনের সংসার টানতে হিমশিম খাচ্ছে রিকশার মিস্ত্রি বাবা, তাই পড়াশোনা ছেড়ে স্বাবলম্বী হতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে সে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    কড়াইলের ট্রেইনিং সেন্টারে এক মাস ধরে সেলাই শিখছে সামিয়া আক্তার। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এই বছর জুনে পড়াশোনার ইতি টানতে হয়েছে নবম শ্রেণির এই শিক্ষার্থীকে। পাঁচজনের সংসার টানতে হিমশিম খাচ্ছে রিকশার মিস্ত্রি বাবা, তাই পড়াশোনা ছেড়ে স্বাবলম্বী হতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে সে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশন কারিগরি শিক্ষার পাশাপাশি প্রতি মাসে ৬০ টাকার বিনিময়ে কড়াইল বস্তির শিক্ষার্থীদের ব্যাচ করে সকাল-বিকাল দুই সময়ে প্রাইভেট পড়ানোর পাশাপাশি কম্পিউটার শিক্ষা দেয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশন কারিগরি শিক্ষার পাশাপাশি প্রতি মাসে ৬০ টাকার বিনিময়ে কড়াইল বস্তির শিক্ষার্থীদের ব্যাচ করে সকাল-বিকাল দুই সময়ে প্রাইভেট পড়ানোর পাশাপাশি কম্পিউটার শিক্ষা দেয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • গুলশান-১ নম্বরের ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত পুনর্ব্যবহারযোগ্য বাংলিশ ক্রাফটের অ্যাকটিভ ট্রেইনিং সেন্টারে প্রশিক্ষণার্থীদের তৈরি বিভিন্ন পণ্য। এসব পণ্য বিদেশে রপ্তানি করা হয়, কাজের উপর ভিত্তি করে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে লভ্যাংশের একটি অংশ দেওয়া হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    গুলশান-১ নম্বরের ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত পুনর্ব্যবহারযোগ্য বাংলিশ ক্রাফটের অ্যাকটিভ ট্রেইনিং সেন্টারে প্রশিক্ষণার্থীদের তৈরি বিভিন্ন পণ্য। এসব পণ্য বিদেশে রপ্তানি করা হয়, কাজের উপর ভিত্তি করে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে লভ্যাংশের একটি অংশ দেওয়া হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • গুলশান-১ নম্বরের ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত পুনর্ব্যবহারযোগ্য বাংলিশ ক্রাফটের অ্যাকটিভ ট্রেইনিং সেন্টারে প্রশিক্ষণার্থীদের তৈরি বিভিন্ন পণ্য। এসব পণ্য বিদেশে রপ্তানি করা হয়, কাজের উপর ভিত্তি করে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে লভ্যাংশের একটি অংশ দেওয়া হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    গুলশান-১ নম্বরের ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত পুনর্ব্যবহারযোগ্য বাংলিশ ক্রাফটের অ্যাকটিভ ট্রেইনিং সেন্টারে প্রশিক্ষণার্থীদের তৈরি বিভিন্ন পণ্য। এসব পণ্য বিদেশে রপ্তানি করা হয়, কাজের উপর ভিত্তি করে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে লভ্যাংশের একটি অংশ দেওয়া হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • করোনাভাইরাস মহামারীর লকডাউনের শুরুতে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায় অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী অঞ্জনা আক্তারের। কড়াইলের ভকেশনাল ট্রেইনিং সেন্টার থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত পুনর্ব্যবহারযোগ্য বাংলিশ ক্রাফটের অ্যাকটিভ ট্রেইনিং সেন্টারে কাজের সুযোগ পেয়েছে সে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    করোনাভাইরাস মহামারীর লকডাউনের শুরুতে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায় অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী অঞ্জনা আক্তারের। কড়াইলের ভকেশনাল ট্রেইনিং সেন্টার থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত পুনর্ব্যবহারযোগ্য বাংলিশ ক্রাফটের অ্যাকটিভ ট্রেইনিং সেন্টারে কাজের সুযোগ পেয়েছে সে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ শেষে দক্ষতা অর্জনের জন্য গুলশান ১ নম্বর সেকশনে ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের প্রধান অফিসে কাজ শিখছে রতনা আক্তার। মহামারীর শুরুতে পড়াশোনা ছেড়ে কারগরি শিক্ষা নিয়ে স্বাবলম্বী হতে এসেছে কড়াইল বস্তির অষ্টম শ্রেণির এই ছাত্রী। প্রশিক্ষণের সময় প্রতিমাসে ৪ হাজার টাকা করে বৃত্তিসহ কাজের উপর ভিত্তি করে লভ্যাংশের একটি অংশ পেয়ে থাকে প্রত্যেকে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ শেষে দক্ষতা অর্জনের জন্য গুলশান ১ নম্বর সেকশনে ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশনের প্রধান অফিসে কাজ শিখছে রতনা আক্তার। মহামারীর শুরুতে পড়াশোনা ছেড়ে কারগরি শিক্ষা নিয়ে স্বাবলম্বী হতে এসেছে কড়াইল বস্তির অষ্টম শ্রেণির এই ছাত্রী। প্রশিক্ষণের সময় প্রতিমাসে ৪ হাজার টাকা করে বৃত্তিসহ কাজের উপর ভিত্তি করে লভ্যাংশের একটি অংশ পেয়ে থাকে প্রত্যেকে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • ঢাকার কড়াইল বস্তির গড়ে তোলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে তিন মাসের প্রশিক্ষণে সপ্তাহে পাঁচ দিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে হাতে-কলমে শিক্ষা। প্রশিক্ষণ চলাকালীন প্রত্যেককে প্রতি মাসে ২ থেকে ৪ হাজার টাকার বৃত্তি দেওয়া হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    ঢাকার কড়াইল বস্তির গড়ে তোলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে তিন মাসের প্রশিক্ষণে সপ্তাহে পাঁচ দিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে হাতে-কলমে শিক্ষা। প্রশিক্ষণ চলাকালীন প্রত্যেককে প্রতি মাসে ২ থেকে ৪ হাজার টাকার বৃত্তি দেওয়া হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • ঢাকার কড়াইল বস্তিতে গড়ে তোলা ভকেশনাল ট্রেইনিং সেন্টারে সুবিধাবঞ্চিত কিশোর-কিশোরীদের স্বাবলম্বী করে তুলতে সেলাইসহ নানা ধরনের হস্তশিল্প সামগ্রী তৈরির প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশন। এখানে প্রশিক্ষণ চলাকালীন প্রত্যেকে প্রতি মাসে কমপক্ষে ২ হাজার টাকা বৃত্তি পায়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    ঢাকার কড়াইল বস্তিতে গড়ে তোলা ভকেশনাল ট্রেইনিং সেন্টারে সুবিধাবঞ্চিত কিশোর-কিশোরীদের স্বাবলম্বী করে তুলতে সেলাইসহ নানা ধরনের হস্তশিল্প সামগ্রী তৈরির প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ভিয়ালিসা ফাউন্ডেশন। এখানে প্রশিক্ষণ চলাকালীন প্রত্যেকে প্রতি মাসে কমপক্ষে ২ হাজার টাকা বৃত্তি পায়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি