সৌরভ মিথ্যা বলেছেন নাকি কোহলি? শাস্ত্রী জানতে চান সত্য

দুই জনের দাবি দুই রকম। সৌরভ গাঙ্গুলি নাকি বিরাট কোহলি, মিথ্যার আশ্রয় কে নিয়েছেন, এই নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটে চলছে তোলপাড়। রবি শাস্ত্রী অবশ্য মিথ্যার গভীরে না গিয়ে স্রেফ জানতে চান সত্যটি। ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার ও সদ্য বিদায়ী কোচের মতে, গোটা পরিস্থিতি সামলানো যেত আরও ভালোভাবে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Dec 2021, 05:41 AM
Updated : 24 Dec 2021, 08:46 AM

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে শেষ হয় ভারতের কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রীর দীর্ঘ যাত্রা। ওই আসর দিয়ে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্বকেও বিদায় জানান কোহলি।

তবে এরপর হয়ে গেছে ভারতীয় ক্রিকেটের আরেকটি চমক জাগানিয়া পালাবদল। কোহলিকে সরিয়ে ওয়ানডেতে অধিনায়ক করা হয়েছে রোহিত শর্মাকে। এই বদলের প্রক্রিয়া নিয়েই ভারতীয় বোর্ডের প্রধান সৌরভ বলেছেন একরকম, সেটি আবার উড়িয়ে দিয়েছেন কোহলি। এসব নিয়ে চলছে ক্রমাগত বিতর্ক। ভারতের সাবেক ক্রিকেটারদের অনেকেই জানিয়েছেন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া। এবার জানা গেল শাস্ত্রীর মতামত, কোহলির নেতৃত্বের গোটা সময়টায় যিনি ছিলেন কোচ।

ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাস্ত্রী বললেন, দুই পক্ষের যোগাযোগের ঘাটতিই এখানে ফুটে উঠেছে প্রবলভাবে।

“আমি এই সিস্টেমের অংশ অনেক বছর ধরে, এই দলের অংশ ছিলাম সাত বছর। জনসম্মুখে মুখ খোলার চেয়ে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ ভালো রেখে এসব আরও অনেক অনেক ভালোভাবে সামলানো যায়।”

“বিরাট (কোহলি) তার নিজের দিকটা তুলে ধরেছে। এখন বোর্ড সভাপতির উচিত তার দিকটা তুলে ধরা কিংবা যা হয়েছে, সেটি নিয়ে পরিষ্কার ধারণা দেওয়া। ব্যস।”

“এখানে প্রশ্ন এটা নয় যে, মিথ্যা কে বলছে। প্রশ্ন হলো, সত্য কোনটি? সত্যটা জানা প্রয়োজন এবং সেটা আসতে পারে কেবল আলোচনা ও যোগাযোগের মাধ্যমেই। অন্য কোনোভাবে নয়।”

“একজন এক পাশে বসে একটা কিছু বললেন, আরেকজন আরেক পাশে বসে তার কথা বলবেন। এরকম স্বচ্ছতা প্রয়োজন। দুই পাশ থেকেই কথা বলা প্রয়োজন, এক পাশ থেকে নয়।”

তবে প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন থাকলেও ওয়ানডে নেতৃত্বে বদলের সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই শাস্ত্রীর।

“সাদা বলের ক্রিকেটে একজন অধিনায়কই থাকা উচিত। রোহিত শর্মা টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক, সাদা বলের ক্রিকেটে তারই নেতৃত্ব দেওয়া উচিত।”

ওয়ানডে নেতৃত্বে পরিবর্তনের পর সৌরভ বলেছিলেন, কোহলিকে তারা টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব চালিয়ে যেতে বলেছিলেন। কিন্তু কোহলি সেটিতে রাজি না হওয়াতেই ওয়ানডে দলের নেতৃত্বেও পরিবর্তন আনা হয়। সাদা বলের ক্রিকেটে একাধিক অধিনায়ক তারা চাননি।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাওয়ার আগে কোহলি উড়িয়ে দেন বোর্ড সভাপতির এই দাবি। টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব চালিয়ে যেতে কোনো অনুরোধই তাকে করা হয়নি বলে জানান কোহলি। বরং, টেস্ট দল ঘোষণার মাত্র ঘণ্টা দেড়েক আগে তাকে ওয়ানডে অধিনায়কত্ব থেকে সরানোর খবর জানানো হয় বলে দাবি করেন কোহলি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক