নাবিলের ৭৬, আইচের ব্যাটে লড়ছে যুবারা

প্রথম ওভারেই উইকেট হারানোর ধাক্কা সামলে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে প্রান্তিক নওরোজ নাবিল গড়ে দিয়েছেন দৃঢ় ভিত। এই ওপেনারের ফিফটির পর দলকে টানছেন আইচ মোল্লা। আফগান যুবাদের আবার ব্যাটিংয়ে নামা নিশ্চিত করে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Sept 2021, 01:26 PM
Updated : 24 Sept 2021, 01:26 PM

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে একমাত্র যুব টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে বাংলাদেশ এগিয়ে ৫১ রানে। আফগানদের ২৮১ রানে গুটিয়ে দিয়ে তারা ৪ উইকেটে করেছে ১৭০।

প্রথম ইনিংসে ১৬২ রানে শেষ হয়ে যাওয়া দলকে লিড এনে দেওয়ার কারিগর নাবিল। ১৬৬ বলে ৭৬ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ৪০ রান নিয়ে অপরাজিত আইচ।

৮ উইকেটে ২২৬ রান নিয়ে দিনের শুরুটা ভালোই করেছিল আফগানরা। সাবধানী ব্যাটিংয়ে ফয়সাল খান আহমাদজাইকে নিয়ে শুরুর কঠিন সময় কাটিয়ে দেন সেঞ্চুরিয়ান বিলাল সায়েদি। তাদের ব্যাটে আড়াইশ পার করে সফরকারীরা।

এদিন সায়েদি যেতে পারেননি বেশিদূর। আইচের বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন ১১৪ রানে। তার ৩৪০ বল ও ৫০০ মিনিট স্থায়ী ইনিংসে ১২ চারের পাশে ছক্কা একটি।

সময়ের সঙ্গে আক্রমণ শুরু করেন ফায়সাল। আহসান হাবিবকে দুই চার মারার পর খালিদ হাসানকে ওড়ান ছক্কায়। পরে মেহরব হাসানকে মারেন আরেকটি। রিপন মণ্ডলকে ছক্কায় ওড়ানোর এক বল পরই ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি ৩৯ রানে। শেষ হয় আফগানিস্তানের প্রথম ইনিংস।

১১৯ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ উইকেট হারায় ইনিংসের ষষ্ঠ বলেই। রানের খাতা খোলার আগে ইফতিখার হোসেনকে এলবিডব্লিউ করে দেন বিলাল সামি।

নাবিল ও খালিদের ব্যাটে শুরুর ধাক্কা সামলে নেয় স্বাগতিকরা। কিন্তু পঞ্চাশ ছোঁয়ার পর এই জুটি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি খালিদের উইকেট বিলিয়ে আসায়। জাহিদউল্লাহ সামিলির অফ স্টাম্পের বাইরের কিছুটা উঁচু ফুলটস বলে ধরা পড়েন তিনি পয়েন্টে। ভাঙে ৫৭ রানের জুটি।

এই লেগ স্পিনারকে চার মেরে রানের খাতা খোলেন দুই দলের ওয়ানডে সিরিজে সেঞ্চুরি করা আইচ। নাবিলের সঙ্গে জমে ওঠে তার জুটি। বাংলাদেশ পেয়ে যায় লিড।

কামরান হোতাককে বাউন্ডারি মেরে ১১৩ বলে পঞ্চাশ তুলে নেন নাবিল। তাকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে যেতে থাকেন আইচ।

সেঞ্চুরিতে চোখ রেখে এগিয়ে যাওয়া নাবিল শেষ পর্যন্ত মাঠ ছাড়েন অনেকটা দূরে থেকেই। ৭ চারে তার ৭৬ রানের ইনিংস থামে নানগেয়ালিয়া খারোটের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে। শেষ হয় আইচের সঙ্গে তার ৯১ রানের প্রতিরোধ।

বাঁহাতি এই স্পিনারের বলে সিলি পয়েন্টে শূন্য রানে ধরা পড়েন মাকসুদুর রহমান। এরপর আর কোনো উইকেট পড়তে দেননি আইচ ও আশরাফুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ১ম ইনিংস: ১৬২

আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দল ১ম ইনিংস: (আগের দিন ২২৬/৮) ১৩৪.৩ ওভারে ২৮১ (সায়েদি ১১৪, ফয়সাল ৩৯, সামি ২*; হাবিব ২৪-৩-৭৫-১, রিপন ১৭.৩-৯-২৪-১, মুশফিক ২১-৯-২৬-১, আশরাফুল ৩৬-৮-৭০-৩, মেহরব ২১-১-৫১-১, আইচ ১০-৫-৮-২, খালিদ ৫-০-২১-০)।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ২য় ইনিংস: ৬৬ ওভারে ১৭০/৪ (ইফতিখার ০, নাবিল ৭৬, খালিদ ২০, আইচ ৪০*, মাকসুদুর ০, আশরাফুল ১৪*; সামি ১২-২-৩০-১, ফায়সাল ৪-১-১১-০, নাভিদ ২৬-৭-৫৭-০, খারোটে ১৩-৩-২২-২, সামিলি ২-০-১১-১, হোটাক ৯-২-২২-০)।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক