রাহুলের ব্যাটে আসরের প্রথম সেঞ্চুরি

লোকেশ রাহুলকে নিয়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অনেক আশা। একাধারে দলের কিপার, ওপেনার। এবার পেয়েছেন নেতৃত্বও। টুর্নামেন্টের শুরুতেই দিলেন আস্থার প্রতিদান। তার ব্যাট থেকেই আইপিএল পেল আসরের প্রথম সেঞ্চুরি। আর দল পেল নিজেদের প্রথম জয়।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Sept 2020, 04:57 PM
Updated : 24 Sept 2020, 06:25 PM

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবাররয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে ৯৭ রানে হারিয়েছে পাঞ্জাব। ২০৭ রানের লক্ষ্যতাড়ায় বিরাট কোহলির দল গুটিয়ে যায় ১০৯ রানেই।

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নিজের পুরনো দলের বিপক্ষে ৬৯ বলে৭ ছক্কা ও ১৪ চারে রাহুল করেন অপরাজিত ১৩২ রান। টি-টোয়েন্টিতে এটাই তার সর্বোচ্চ।আগের সেরা ছিল অপরাজিত ১১০।

৩৬ বলে ফিফটি পূরণ করেন রাহুল। পরের পঞ্চাশ আসে কেবল ২৬বলে। ৬২ বলে আইপিএলে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি স্পর্শ করেন এই ডানহাতি ওপেনার।

গত আসরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ৬৪ বলে অপরাজিত ১০০রানের ইনিংস খেলেছিলেন রাহুল। সেই রান এবার অনায়াসেই ছাড়িয়ে যান তিনি।

সেঞ্চুরি ছোঁয়ার আগে কোহলির হাতে পরপর দুই ওভারে দুইবারজীবন পান রাহুল। একবার ৮৩ রানে, আরেকবার ৮৯। পরে ঝড় তোলেন তিনি।

শেষ ৯ বলে রাহুল করেন ৪২ রান। তার খুনে ব্যাটিংয়ে পাঞ্জাবশেষ ৫ ওভারে তোলে ৮০ রান। শেষের রানের জোয়ারে দলটি ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে করে২০৬ রান।

রাহুলের ১৩২ আইপিএলে ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ।টুর্নামেন্টে কোনো অধিনায়কেরও সর্বোচ্চ রানের ইনিংস এটি। টি-টোয়েন্টি ইতিহাসেঅধিনায়কদের মধ্যে চতুর্থ সর্বোচ্চ। এই সংস্করণে সবচেয়ে বেশি রানের ইনিংস খেলাকিপার-ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্বিতীয়।

বড় রান তাড়ায় ব্যাঙ্গালোরের শুরুটা হয় দুঃস্বপ্নের মতো। ৪রানেই হারায় তিন উইকেট। অ্যারন ফিঞ্চ ও এবি ডি ভিলিয়ার্স কিছুটা সময় লড়াই করলেওদলকে টানতে পারেননি।

শেষের দিকে কিছুটা লড়াই করেন ওয়াশিংটন সুন্দর। রবিবিষ্ণুই ও মুরুগান অশ্বিনের দারুণ বোলিংয়ে একশ ছাড়িয়েই গুটিয়ে যায় ব্যাঙ্গালোর।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব: ২০ ওভারে ২০৬/৩ (রাহুল ১৩২*, আগারওয়াল ২৬,পুরান ১৭, ম্যাক্সওয়েল ৫, নায়ার ১৫*; উমেশ ৩-০-৩৫-০, স্টেইন৪-০-৫৭-০, সাইনি ৪-০-৩৭-০, চেহেল৪-০-২৫-১, সুন্দর ২-০-১৩-০, দুবে৩-০-৩৩-২)

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর: ১৭ ওভারে ১০৯(প্যাডিকেল ১, ফিঞ্চ ২০, ফিলিপি ০, কোহলি ১,ডি ভিলিয়ার্স ২৮, সুন্দর ৩০, দুবে ১২, উমেশ ০, সাইনি ৬,স্টেইন ১*, চেহেল ১; কটরেল৩-০-১৭-২, শামি ৩-০-১৪-১, বিষ্ণুই৪-০-৩২-৩, অশ্বিন ৩-০-২১-৩, নিশাম২-০-১৩-০, ম্যাক্সওয়েল ২-০-১০-১)

ফল: পাঞ্জাব ৯৭ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: লোকেশ রাহুল

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক