এবার হিজাব খুলে ইরানের স্কুল ছাত্রীদের প্রতিবাদ

ঠিকমত হিজাব না পরায় আটক মাশা আমিনির পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু ঘিরে ইরানজুড়ে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভ-প্রতিবাদে সামিল হল স্কুল শিক্ষার্থীরাও।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Oct 2022, 05:25 PM
Updated : 4 Oct 2022, 05:25 PM

মাথা থেকে হিজাব খুলে বাতাসে দুলিয়ে এবং ধর্মীয় নেতাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে ইরানের চলমান বিক্ষোভে একাত্মতা প্রকাশ করেছে ইরানের স্কুলছাত্রীরা।

ঠিকমত হিজাব না পরায় মাশা আমিনি নামে ২২ বছরের এক তরুণীকে নীতি পুলিশ আটক করার পর তাদের হেফাজতে ওই তরুণীর মৃত্যু হলে ইরান জুড়ে তীব্র প্রতিবাদ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর মাশাকে আটক করা হয়। তিনি তার ভাইয়ের সঙ্গে কুর্দি অধ্যুষিত একটি শহর থেকে তেহরান গিয়েছিলেন। আটকের পর তিন দিন কোমায় ছিলেন মাশা।

পুলিশ মাশার মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং পুলিশের গাড়ির সঙ্গে তার মাথা জোরে ঠুকে দেয় বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার। এতে সে অজ্ঞান হয়ে কোমায় চলে যায়। যদিও পুলিশের দাবি, মাশা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

মাশার দাফনের দিন থেকে যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল তার আগুন এখন পুরো ইরান জুড়ে জ্বলছে। এরই মধ্যে বিক্ষোভে শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

এবারের বিক্ষোভে নারীদের অংশগ্রহণ উল্লেখ করার মতো। যে তালিকায় নতুন যোগ হলো স্কুল শিক্ষার্থীরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিক্ষোভের এমন কয়েকটি ভিডিও ও ছবি ছড়িয়ে পড়েছে।

ওই সব ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেছে বিবিসি। একটি ভিডিওতে একটি স্কুলের ভেতরের মাঠে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ করতে দেখা যায়। আরও বেশ কয়েকটি নগরীর সড়কে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে।

তেহরানের পশ্চিমের নগরী কারাজে একদল ছাত্রীকে একজন শিক্ষা কর্মকর্তার সামনে স্লোগান দিতে দেখা যায়।

সোমবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ছাত্রীরা ‘আপনার লজ্জা করা উচিত’ বলে স্লোগান দিচ্ছে এবং তাদের পানির বোতল ছুঁড়ে মারছে। খানিকটা বাক-বিতণ্ডার পর ওই ব্যক্তিকে দ্রুত একটি ফটকের দিকে চলে যেতে দেখা যায়। পেছন পেছন ছাত্রীরাও স্লোগান দিচ্ছিল এবং বোতল ছুড়ে মারছিল।

কারাজ নগরীর আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায়, শিক্ষার্থীদের রাস্তায় ‘যদি আমরা একতাবদ্ধ না হই, তবে তারা আমাদের একে একে মেরে ফেলবে’ বলে স্লোগন দিচ্ছে।

দক্ষিণের নগরী শিরাজে সোমবার কয়েক ডজন স্কুল ছাত্রী একটি প্রধান সড়ক আটকে বিক্ষোভ দেখায়। ওই সময় তারা মাথা থেকে হিজাব খুলে বাতাসে নাড়ছিল এবং ‘স্বৈরাচারের পতন চাই’ বলে স্লোগান দিচ্ছিল।

মঙ্গলবারও কারাজ, তেহরান, সাকাজ ও সানানদাজ নগরীতে স্কুলছাত্রীদের বিক্ষোভের খবর পাওয়া গেছে বলে জানায় বিবিসি।

একটি ছবিতে দেখা গেছে, একদল ছাত্রী শ্রেণীকক্ষে দাঁড়িয়ে আছে। তাদের মাথার হিজাব খোলা। তাদের সামনে ইরানের বর্তমান সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি এবং বর্তমান ইসলামিক রিপাবলিকের প্রতিষ্ঠাতা আয়াতোল্লাহ রুহোল্লাহ খোমেনির ছবি। ছাত্রীদের কেউ কেউ ওই ছবির দিকে মধ্যমা উঁচু করে রেখেছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক