লাল কার্ড দেখে খেপেছেন সুয়ারেস

কাম্প নউয়ে আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে কোপা দেল রের সেমি-ফাইনালের শেষ মুহূর্তে লাল কার্ড দেখেছেন লুইস সুয়ারেস। ফাইনালে নিষিদ্ধ হয়ে পড়া উরুগুয়ের এই ফরোয়ার্ডের দাবি, কোনো ফাউলই করেননি তিনি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Feb 2017, 07:11 AM
Updated : 8 Feb 2017, 07:11 AM

গত মঙ্গলবাররাতে নিজেদের মাঠে আতলেতিকোর সঙ্গে ১-১ ড্র করে বার্সেলোনা। দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানেজিতে টানা চতুর্থবারের মতো কোপা দেল রের ফাইনালে ওঠে এনরিকের দল।

ম্যাচেরশেষ মুহূর্তে বলের দখল নিতে সুয়ারেসের কনুইয়ের আলতো টোকায় পড়ে যান কোকে। রেফারি ছুটেএসে সুয়ারেসকে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন।

৯০তম মিনিটেপাওয়া দ্বিতীয় হলুদ কার্ডটি নিয়ে ম্যাচ শেষে রেফারিকে ধুয়ে দেন সুয়ারেস। জানান, রেফারিরএই সিদ্ধান্তে হেসেছেন তিনি।

“এটাই রেফারিচাচ্ছিলেন। আমি ক্ষুব্ধ। এমনকি এটা কোনো ফাউলও ছিল না। বরাবরের মতো রেফারি আমাকে কোনোব্যাখ্যাও দেননি।

সুয়ারেসআশা করছেন, বার্সেলোনা লালকার্ডের বিরুদ্ধে আপিল করবে। আপিলের পরিকল্পনার কথা ম্যাচশেষের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন কোচ লুইস এনরিকেও। তবে অতীত অভিজ্ঞতা থেকে তার হচ্ছে আবেদনেকোনো লাভ হবে না।

লালকার্ডেরকারণে আগামী ২৭ মের ফাইনালে খেলতে পারবেন না সুয়ারেস। এনরিকেও উরুগুয়ে তারকার বিকল্পনিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন।

“আমি হতাশযে আমার দলের খেলোয়াড় ফাইনাল খেলতে পারবে না। এটা এমন কিছু, যা ফুটবলে ঘটে। রেফারিমনে করেছেন, সুয়ারেস এবং রবের্ত দুজনেই দুটি করে হলুদ কার্ড পাওয়ার যোগ্য।”

৪৩তম মিনিটেসুয়ারেসের গোলেই এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ৮৩তম মিনিটে আতলেতিকোকে সমতায় ফেরান কেভিন গামেরো।ফাইনালে উঠলেও ড্রয়ে সন্তুষ্ট নন বলে জানান এনরিকে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক