স্বাধীনতা জাদুঘরে আছে কী

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে বৃত্তাকার একটি ঘরের মধ্যখানে ছাদের ফোকর দিয়ে অনবরত পড়ছে পানি, যা লাখো শহীদের মা এবং নির্যাতনের শিকার নারীদের অশ্রুকে নির্দেশ করে। এই অংশের নাম দেওয়া হয়েছে অশ্রুপাত। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে বৃত্তাকার একটি ঘরের মধ্যখানে ছাদের ফোকর দিয়ে অনবরত পড়ছে পানি, যা লাখো শহীদের মা এবং নির্যাতনের শিকার নারীদের অশ্রুকে নির্দেশ করে। এই অংশের নাম দেওয়া হয়েছে অশ্রুপাত। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে রোখা বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নথি দেখছেন দর্শনার্থীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে রোখা বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নথি দেখছেন দর্শনার্থীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের স্বাধীনতা জাদুঘরে অন্ধকারের মধ্যে ফুটিয়ে তোলা যুদ্ধের ছবি শনিবার ঘুরে ঘুরে দেখেন দর্শনার্থীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের স্বাধীনতা জাদুঘরে অন্ধকারের মধ্যে ফুটিয়ে তোলা যুদ্ধের ছবি শনিবার ঘুরে ঘুরে দেখেন দর্শনার্থীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বর্বরতার সচিত্র বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের স্বাধীনতা জাদুঘরের ‘ব্ল্যাকজোনে’; মোবাইল ফোনে সেখানকার ছবি তুলছেন এক নারী। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বর্বরতার সচিত্র বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের স্বাধীনতা জাদুঘরের ‘ব্ল্যাকজোনে’; মোবাইল ফোনে সেখানকার ছবি তুলছেন এক নারী। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে শনিবার বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের আলোকচিত্রের সামনে ছবি তোলেন কেউ কেউ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে শনিবার বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের আলোকচিত্রের সামনে ছবি তোলেন কেউ কেউ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে পাকিস্তানি বাহিনী যে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে, তার বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে ৯৩টি আলোকচিত্রের মাধ্যেমে। কালো দেওয়ালের মধ্যে ফুটে ওঠা ছবিগুলো যে স্থানে প্রদর্শিত হচ্ছে, তার নাম দেওয়া হয়েছে ব্ল্যাকজোন। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে পাকিস্তানি বাহিনী যে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে, তার বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে ৯৩টি আলোকচিত্রের মাধ্যেমে। কালো দেওয়ালের মধ্যে ফুটে ওঠা ছবিগুলো যে স্থানে প্রদর্শিত হচ্ছে, তার নাম দেওয়া হয়েছে ব্ল্যাকজোন। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে বৃত্তাকার একটি ঘরের মধ্যখানে ছাদের ফোকর দিয়ে অনবরত পড়ছে পানি, যা লাখো শহীদের মা এবং নির্যাতনের শিকার নারীদের অশ্রুকে নির্দেশ করে। এই অংশের নাম দেওয়া হয়েছে অশ্রুপাত। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে বৃত্তাকার একটি ঘরের মধ্যখানে ছাদের ফোকর দিয়ে অনবরত পড়ছে পানি, যা লাখো শহীদের মা এবং নির্যাতনের শিকার নারীদের অশ্রুকে নির্দেশ করে। এই অংশের নাম দেওয়া হয়েছে অশ্রুপাত। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • স্বাধীনতা দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে শনিবার দর্শনার্থীরা ঘুরে ঘুরে দেখছেন বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার চিত্র। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    স্বাধীনতা দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে শনিবার দর্শনার্থীরা ঘুরে ঘুরে দেখছেন বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার চিত্র। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • স্বাধীনতা দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে শনিবার দর্শনার্থীরা ঘুরে ঘুরে দেখছেন বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার চিত্র। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    স্বাধীনতা দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে শনিবার দর্শনার্থীরা ঘুরে ঘুরে দেখছেন বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার চিত্র। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • স্বাধীনতা দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে এসে মুক্তিযুদ্ধের গুরুত্বপূর্ণ স্মারকের সঙ্গে নিজেকে ক্যামেরাবন্দি করেন অনেকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    স্বাধীনতা দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা জাদুঘরে এসে মুক্তিযুদ্ধের গুরুত্বপূর্ণ স্মারকের সঙ্গে নিজেকে ক্যামেরাবন্দি করেন অনেকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ভূগর্ভস্থ স্বাধীনতা জাদুঘরে বড়দের প্রবেশ মূল্য ২০ টাকা, বাচ্চাদের প্রবেশ মূল্য ১০ টাকা; আর সার্কভুক্ত নাগরিকদের জন্য ৩০০ এবং বিদেশিদের জন্য প্রবেশ মূল্য ৫০০ টাকা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ভূগর্ভস্থ স্বাধীনতা জাদুঘরে বড়দের প্রবেশ মূল্য ২০ টাকা, বাচ্চাদের প্রবেশ মূল্য ১০ টাকা; আর সার্কভুক্ত নাগরিকদের জন্য ৩০০ এবং বিদেশিদের জন্য প্রবেশ মূল্য ৫০০ টাকা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি