‘পাওয়ারফুল’ সোহানকে নিয়ে ডমিঙ্গোর যে আশা

৩১ ম্যাচে ২৭ ইনিংস ব্যাট করার সুযোগ, নিজেকে মেলে ধরার যথেষ্ট সুযোগই বলতে হবে। কিন্তু নুরুল হাসান সোহানের টি-টোয়েন্টি পরিসংখ্যান এখনও পর্যন্ত বড্ড সাদামাটা। তবে রাসেল ডমিঙ্গো দেখছেন সংখ্যার আড়ালে লুকিয়ে থাকা ছবিটা। সেখানে বাংলাদেশ কোচের চোখে পড়ছে এমন একজনকে, দলের দীর্ঘদিনের বড় এক শূন্যতা যিনি পূরণ করতে পারেন।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 July 2022, 07:15 AM
Updated : 3 July 2022, 02:30 PM

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে পেশির জোর আর উদ্ভাবনী শট খেলে খেলার মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া, ব্যাটিং তাণ্ডবে প্রতিপক্ষকে দুমড়ে-মুচড়ে দেওয়া ব্যাটসম্যানের খোঁজ অনেক দিন ধরেই চলছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে। বিশেষ করে শেষ দিকে নেমে যিনি তুলতে পারবেন ঝড়। সোহানকে নিয়ে এখন সেই স্বপ্নই দেখছেন ডমিঙ্গো।

যদিও সোহানের পারফরম্যান্স এখনও পর্যন্ত দারুণ কিছু নয়। দেশের হয়ে এই সংস্করণে তার সর্বোচ্চ ইনিংসটি স্রেফ ৩০ রানের। সেটিও খেলেছিলেন সেই ২০১৬ সালে, ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ইনিংসে। গত বছর দেশের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ, পরে বিশ্বকাপে টানা সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি।

কিপিংয়ে নিজের উপযোগিতা দারুণভাবে দেখাতে পেরেছেন বটে, তবে ব্যাট হাতে ছিলেন টানা ব্যর্থ।

বিশ্বকাপের পর পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে প্রথম ম্যাচে ২২ বলে ২৮ রানের ইনিংস খেলতে পারলেও ব্যর্থ হন তিনি পরের দুই ম্যাচে। পরে আর সুযোগ হয়নি আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে খেলার।

এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে দলের ব্যাটিং ব্যর্থতার টেস্ট সিরিজে দুই টেস্টেই ফিফটি করেন সোহান। নিজের লড়িয়ে মানসিকতার প্রমাণও দেন আবারও। এরপর শনিবার টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচেও তিনি উজ্জ্বল ব্যাট হাতে।

খুব বড় কিছু অবশ্য করেননি। তবে ম্যাচের প্রেক্ষাপটে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন দলের হয়ে। বিপর্যয়ের মধ্যে তার ১৬ বলে ২৫ রানের ইনিংস দলকে একশ পার করায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফাস্ট বোলার ওডিন স্মিথের এক ওভারে দুটি ছক্কায় নিজের সামর্থ্য ও সম্ভাবনার জানান দেন সোহান। একটি ছক্কা ছিল দুর্দান্ত র‌্যাম্প শটে, আরেকটি কবজির জোরে স্লগ করে। দ্বিতীয়টি ছিল ৯২ মিটার লম্বা।

এখনও পর্যন্ত তাই সোহানের ক্যারিয়ার পরিসংখ্যান যতই গড়পড়তা হোক, ম্যাচ শেষে ডমিঙ্গো বললেন, এমন একজনকেই দরকার দলের।

“সোহান এই সংস্করণে আমাদের জন্য সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার হয়ে উঠতে পারে। পাওয়ারফুল ছেলে সে, ইনিংসের শেষ দিকে বিগ হিটার। নতুন মাত্রা যোগ করছে সে আমাদের জন্য। যদিও সে ভুল পথ বেছে নিয়ে আউট হয়েছে। তার জন্য এটা শিক্ষাও। তাকে ভালো ফর্মে দেখে ভালো লেগেছে। টেস্ট সিরিজ থেকে ফর্ম টি-টোয়েন্টিতে বয়ে এনেছে সে।”

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে নিজেকে মেলে ধরার আরেকটি সুযোগ পাবেন তিনি। প্রথম ম্যাচের ভেন্যু ডমিনিকার উইন্ডসর পার্কেই যে ম্যাচ রোববার, বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১১টায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক