টেস্ট অধিনায়কত্ব নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে বোর্ড সভায়

মুমিনুল হককে নেতৃত্বে রেখেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট দল ঘোষণা করা হয় দিন দশেক আগে। কিন্তু সফর শুরুর মাত্র দিন কয়েক আগে তিনি নেতৃত্ব ছাড়তে চাওয়ায় পরিস্থিতি এখন বেশ ঘোলাটে। অধিনায়কত্ব থেকে তাকে বোর্ড এখনই রেহাই দেবে কিনা, দিলে কে দায়িত্ব পাবেন, সবকিছু জানা যাবে বৃহস্পতিবার বিসিবির পরিচালনা পর্ষদের সভার পর।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 May 2022, 04:08 PM
Updated : 31 May 2022, 04:08 PM

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের সঙ্গে তার বাসভবনে দেখা করে মঙ্গলবার মুমিনুল জানান টেস্ট নেতৃত্ব চালিয়ে যেতে চান না তিনি। ব্যাটিং ফর্ম নিয়ে ধুঁকতে থাকা ব্যাটসম্যান মন দিতে চান নিজের ব্যাটিংয়ে।

মুমিনুল বিসিবি সভাপতির সঙ্গে কথা বলে বেরিয়ে যাওয়ার পর বিসিবি পরিচালক ও বোর্ডের মিডিয়া কমিটির প্রধান তানভীর আহমেদ সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন, সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে কথা বলে পরের পদক্ষেপ নেবেন নাজমুল হাসান।

“সে (মুমিনুল) আজকে মাত্র জানিয়েছে। এটার সঙ্গে অনেক কিছু জড়িয়ে আছে। বোর্ড সভাপতি, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের সঙ্গে কথা বলতে হবে, দলের সবার সঙ্গে কথা বলতে হবে। বোর্ড সভা আছে ২ তারিখে। আশা করি বোর্ড সভায় আলোচনা হবে। তখন একটা কংক্রিট কিছু বলতে পারব।”

“মুমিনুল যেটা জানিয়েছে, এটা সম্পূর্ণ তার ব্যক্তিগত ইচ্ছা। যেহেতু ক্রিকেট বোর্ডের কোনো পরিকল্পনা ছিল না, তাকে ছাড়তে বলা হয়নি বা চাপ দেওয়া হয়নি, তাই মুমিনুল সরে গেলে কে হবে (অধিনায়ক), এটাও বোর্ড থেকে আগে ঠিক করা ছিল না। বোর্ড সভাপতি এসব নিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলবেন। বোর্ড, ম্যানেজমেন্ট, ক্রিকেটাররা, সবার সঙ্গে কথা বলেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

মুমিনুলের জায়গায় সাকিব আল হাসানকে দায়িত্বে ফেরানো হতে পারে বলে গুঞ্জন চলছে দেশের ক্রিকেটে। সিঙ্গাপুরে শারীরিক পরীক্ষা করিয়ে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার কথা ছিল সাকিবের, কিন্তু মঙ্গলবার তিনি ফিরে আসেন দেশে। এটির সঙ্গে সাকিবের নেতৃত্ব পাওয়ার যোগসূত্রও দেখছেন অনেক। মিডিয়া কমিটির প্রধান অবশ্য বললেন, এই সরল সমীকরণই চূড়ান্ত নয়।

“সাকিব একজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। যদি মুমিনুল না থাকে, তার পরিবর্তে অভিজ্ঞ কাউকে দেবে, এটাই তো সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নেবে। তবে সাকিব চলে এসেছে মানেই যে তাকেই দেবে, এটা নয়। হতে পারে তাকে দেবে, নাও হতে পারে। আমরা অনেক কিছু দেখে অনেক ধারণা করে নেই। আসলেই এটা কিনা, তা ২ তারিখের আগে জানা যাবে না।”

দল ঘোষণার পর সফরের ঠিক আগে অধিনায়কের দায়িত্বে থাকতে না চাওয়ায় বোর্ডে বা দলে অস্বস্তিকর পরিস্থিতির কোনো কারণও দেখছেন না তানভীর আহমেদ।

“অস্বস্তিকর বা স্বস্তিকর, কিছুই বলব না আমরা এটাকে। ক্রিকেট তার নিজস্ব গতিতে চলবে। আমরা আমাদের নিজস্ব গতিতে চলব। বোর্ড সভাপতি বাকি সবার সঙ্গে আলোচনা করবেন।”

“অধিনায়ক কাকে করা হবে না হবে, এটা একক সিদ্ধান্ত নয়। যেহেতু পরশু বোর্ড সভা আছে, নতুন অধিনায়ক হবে কিনা, হলে কে হবে বা এই সিরিজ থেকেই হবে কিনা, এটা আমরা পরশু সব জানিয়ে দেব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক