বাংলাদেশের বিপক্ষে লড়াইয়ের আগে কন্ডিশনের স্বস্তি মুজিবের

বাংলাদেশের কন্ডিশন এমনিতেই আফগানিস্তানের ক্রিকেটারদের চেনা। এবার সেখানে দুই দলের সিরিজের ঠিক আগে বিপিএল খেলা ও সিলেটে ক্যাম্প করার সুযোগ। সব মিলিয়ে আফগানরা দারুণ স্বস্তি নিয়েই বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে মাঠে নামবে বলে মনে করেন মুজিব উর রহমান।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Feb 2022, 12:50 PM
Updated : 3 Feb 2022, 12:50 PM

জাতীয় দলের হয়ে আফগানরা নানা সময়েই এসেছেন বাংলাদেশে। এছাড়া এখানকার বিপিএলেও তাদের বেশ কজনকে দেখা যায় নিয়মিত। মুজিব বিশ্ব ক্রিকেটে নিজের আগমণী বার্তা জানান দেন বাংলাদেশ থেকেই। ২০১৭ সালে আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে এখানে এসে ৫ ম্যাচে নেন ১৭ উইকেট। এরপর তো জাতীয় দলের হয়ে এসেছেন, খেলেছেন বিপিএলে।

এবারও বিপিএলে তিনি আছেন দারুণ ফর্মে। এখনও পর্যন্ত খেলেছেন তিন ম্যাচ। চট্টগ্রামের ব্যাটিং উইকেটেও তিন ম্যাচে অসাধারণ বোলিং করে বড় অবদান রেখেছেন দলের জয়ে। আরেক আফগান স্পিনার রশিদ খানও বাংলাদেশে দারুণ সফল বিপিএলে ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে।

বিপিএল শেষ হওয়ার আগেই বাংলাদেশে চলে আসবে মুজিবের অন্য আফগান সতীর্থরা। দুই দল খেলবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ও ২ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

ফরচুন বরিশালের অনুশীলন শেষে বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মুজিব বললেন, কন্ডিশন ও উইকেটের কারণে তারা আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামবেন বাংলাদেশের বিপক্ষে।

“আগেও আমরা বাংলাদেশে এসেছি, অনেক সিরিজ খেলেছি। এবার আসতে পেরে খুশি। বিপিএল শেষে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ আছে আমাদের। এখানকার স্পিনিং কন্ডিশনে আমরা খুশি। এশিয়ার অন্যান্য উইকেট তো বটেই, ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেটের উইকেট আমাদের জন্য ভালো।”

দুই দলের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটি আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ। ১২ ম্যাচে ৮ জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় এখন দুইয়ে আছে বাংলাদেশ। ৬ ম্যাচের সবকটি জিতে আফগানিস্তানও এগিয়ে চলেছে দারুণ গতিতে। মুজিবের মতে, সুপার লিগের পয়েন্ট এই সিরিজকেও দেবে ভিন্ন মাত্রা।

“বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মতো দলগুলির ওয়ানডেতে পয়েন্ট দরকার। সব দলই জিততে চায় ও পয়েন্ট পেতে চায়। তিনটি ওয়ানডে এখানে…।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক