তাসকিনের ফিটনেস সংশয়ে টেস্ট দলে রুবেল

পাকিস্তান সফরের টেস্ট দলের ভাবনায় প্রবলভাবেই ছিলেন তাসকিন আহমেদ। তবে তার ফিটনেস নিয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি নির্বাচকরা। টেস্ট রেকর্ড ভীষণ বাজে হলেও তাই ফেরানো হয়েছে রুবেল হোসেনকে। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীনের মতে, রুবেলের জন্য এটি আরেকটি সুযোগ সাদা পোশাকে ভালো কিছু করার।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2020, 03:52 PM
Updated : 1 Feb 2020, 03:52 PM

তাসকিন তার ক্যারিয়ারের পাঁচ টেস্টের সবশেষটি খেলেছেন ২০১৭ সালে, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে। চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরে এবার জাতীয় লিগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি পেসার ছিলেন চার ম্যাচে ১৭ উইকেট নিয়ে। শুক্রবার শুরু হওয়া বিসিএলের প্রথম দিনে নিয়েছেন ২ উইকেট।

তবে এ দিনই ৯.২ ওভার বোলিং করার পর পায়ে ক্র্যাম্প নিয়ে মাঠ ছাড়েন তাসকিন। এটিই তার জন্য কাল হয়েছে, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানালেন প্রধান নির্বাচক।

“তাসকিন উমরাহ করার জন্য বেশ কিছুদিন বাইরে ছিল। খেলার মধ্যে ছিল না। এরপর বিসিএলের ম্যাচে কাল ৯ ওভার বোলিং করে মাঠ ছেড়েছে। ফিটনেস এরকম হলে টেস্ট খেলা মুশকিল। টেস্টে তো অনেক বল করতে হয়। বিসিএল খেলতে থাকুক, সামনে ওকে দেখব আমরা।”

বিপিএল শেষে গত ১৮ জানুয়ারি উমরাহ করতে পরিবারের সঙ্গে সৌদি আরব গিয়েছিলেন তাসকিন। সেই সময় ঘরোয়া ক্রিকেট বা অন্য কোথাও ছিল না কোনো খেলা। ফিরেছেন বিসিএল শুরুর আগে।

শুক্রবার ৯.২ ওভার বোলিং করে ক্র্যাম্প নিয়ে মাঠ ছাড়লেও পরে আবার ফিরেছিলেন মাঠে। শনিবার দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ ওভার বোলিং করে দলেল একমাত্র উইকেটও নিয়েছেন। তবু তার ফিটনেস নিয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি নির্বাচকরা।

তাসকিনকে না নেওয়ার চেয়েও বড় বিস্ময় রুবেলকে ফেরানো। ১০ বছরের বেশি টেস্ট ক্যারিয়ারে কখনোই খুব বেশি কিছু করতে পারেননি রুবেল। বাদ পড়েছেন অনেকবার, নতুন আশা নিয়ে ফেরানোও হয়েছে বারবার। লাভ হয়নি কিছুতেই।

ক্যারিয়ারে ২৬ টেস্ট খেলে রুবেলের উইকেট কেবল ৩৩টি। বোলিং গড় ৮০.৩৩, ১০টির বেশি টেস্ট খেলা বোলারদের মধ্যে টেস্ট ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে বোলিং গড় তারই।

সাম্প্রতিক সময়ে ঘরোয়া ক্রিকেটেও বড় দৈর্ঘ্যের ম্যাচে করতে পারেননি দারুণ কিছু। জাতীয় লিগে এক ইনিংসে ৭ উইকেট নিলেও বাকি ১১ ইনিংস মিলিয়ে ছিল কেবল ৬ উইকেট। বিসিএলের প্রথম ইনিংসে শুক্রবার সতীর্থ বোলাররা সব ভালো করলেও রুবেল ১০ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য।

মিনহাজুল তবু আস্থা রাখছেন রুবেলের অভিজ্ঞতায়।

“রুবেলের টেস্ট পারফরম্যান্স খুব খারাপ অবশ্যই। তবে তাসকিনের বিকল্প ভাবতে গিয়ে ওর নাম এসেছে। ওর অভিজ্ঞতা আমাদের কাজে লাগতে পারে। খেলার মধ্যে আছে। টেস্টে আরেকটি সুযোগ ওকে দেওয়া যায়।”

তাসকিনের বিকল্প হিসেবে শফিউল ইসলামের নামও আসতে পারত। বিসিএলে শুক্রবার আগুন ঝরা বোলিংয়ে এক ওভারে নিয়েছেন ৪ উইকেট। ইনিংসে নিয়েছেন ৪০ রানে ৬ উইকেট।

প্রধান নির্বাচক জানালেন, রঙিন পোশাকে নিয়মিত বলে সাদা পোশাকে নেওয়া হয়নি শফিউলকে।

“শফিউল তো ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি নিয়মিত খেলছে এখন। লাল বলে ওকে তাই ভাবিনি। আপাতত খেলুক সীমিত ওভারে।”

পাকিস্তানে এই দফায় একটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে ম্যাচ শুরু আগামী শুক্রবার। বাংলাদেশ দল ঢাকা ছাড়বে মঙ্গলবার।

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন কুমার দাস, মাহমুদউল্লাহ, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসান, আল আমিন হোসেন, আবু জায়েদ চৌধুরী, ইবাদত হোসেন, রুবেল হোসেন, সৌম্য সরকার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক