ফিঞ্চের সঙ্গে পেরে উঠছে না পাকিস্তান

নিজেকে যেন ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতায় মেতেছেন অ্যারন ফিঞ্চ। তাতে পুড়ছে পাকিস্তান। টানা দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করলেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক। টানা দ্বিতীয় জয় পেল বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।  

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 March 2019, 07:34 PM
Updated : 25 March 2019, 06:08 AM

আগের ম্যাচে ১১৬ রানের চমৎকার ইনিংস খেলা ফিঞ্চ এবার পেলেন ত্রয়োদশ সেঞ্চুরি। আগের সেরা ১৪৮ ছাড়িয়ে অপরাজিত থাকলেন ১৫৩ রানে। তার ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৮ উইকেটে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া। ২৮৫ রানের লক্ষ্য ১৩ বল বাকি থাকতে ছুঁয়ে ফেলে তারা।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি পাকিস্তানের। শূন্য রানে ফিরেন ইমাম-উল-হক। খানিক পর ফিরে যান শান মাসুদ। দুই ওপেনারকে বিদায় করা পেসার জাই রিচার্ডসন ফিল্ডিংয়ের সময় চোট পেয়ে একাদশ ওভারে মাঠ ছাড়েন। কাঁধে চোট পাওয়া এই বোলার সিরিজে বাকি তিন ম্যাচে আর খেলতে পারবেন না।

এক প্রান্ত আগলে রেখে দলকে এগিয়ে নেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। অন্য প্রান্তে মিলছিল না তেমন সহায়তা। ভালো শুরুটা বড় করতে পারেননি হারিস সোহেল ও উমর আকমল।

অধিনায়ক শোয়েব মালিক ক্রিজে আসার পর পাল্টায় চিত্র। দ্রুত জমে যায় তার সঙ্গে রিজওয়ানের জুটি। ৬১ বলে তিন চার ও এক ছক্কায় ৬০ রান করা মালিককে বিদায় করে ১২৭ রানের জুটি ভাঙেন অ্যাডাম জ্যাম্পা।

আগের সেরা অপরাজিত ৭৫ ছাড়িয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া রিজওয়ান থামেন ১১৫ রানে। এই কিপার ব্যাটসম্যানের ১২৬ বলের দায়িত্বশীল ইনিংস গড়া ১১ চারে। শেষের দিকে ১০ বলে অপরাজিত ১৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন ইমাদ ওয়াসিম।

ছবি: আইসিসি

৫ ওভারে ১৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন রিচার্ডসন। তার অনুপস্থিতিতে হাত ঘুরানো ফিঞ্চ বেঁধে রাখেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের। অনিয়মিত বাঁহাতি এই স্পিনার ১০ ওভারে ৪১ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট।

ওসমান খাওয়াজার সঙ্গে ২০৯ রানের জুটিতে দলকে জয়ের ভিত গড়ে দেন ফিঞ্চ। শুরুতে শট খেলে রানের চাকা সচল রেখেছিলেন বাঁহাতি ওপেনার খাওয়াজা। একটু সময় নেওয়া ফিঞ্চ পরে চড়াও হন বোলারদের ওপর। এক সময়ে ছাড়িয়ে যান সতীর্থকে।

ইয়াসির শাহকে ছক্কায় উড়ানোর চেষ্টায় খাওয়াজার বিদায়ে ভাঙে ৩৬.৪ ওভার স্থায়ী জুটি। বাঁহাতি ওপেনারের ১০৯ বলে খেলা ৮৮ রানের ইনিংস সাজানো ৮ চারে।

দুই ছক্কায় ১৯ করে রান আউট হয়ে ফিরে যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। শন মার্শকে নিয়ে বাকিটা সহজেই সারেন ফিঞ্চ। দলের জয়কে সঙ্গে নিয়ে ফেরা এই ওপেনারের ১৪৩ বলে খেলা ১৫৩ রানের অধিনায়কোচিত ইনিংস গড়া ছয় ছক্কা ও ১১ চারে।

আঁটসাঁট বোলিং আর দাপুটে সেঞ্চুরির জন্য ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ফিঞ্চ।

আগামী বুধবার আবু ধাবিতে সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নামবে অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ২৮৪/৭ (ইমাম ০, মাসুদ ১৯, হারিস ৩৪, রিজওয়ান ১১৫, আকমল ১৬, মালিক ৬০, আশরাফ ১৪, ওয়াসিম ১৯*, ইয়াসির ১*; রিচার্ডসন ২/১৬, কোল্টার-নাইল ২/৫২, স্টয়নিস ০/৪০, লায়ন ১/৬৪, জ্যাম্পা ১/৫৭, ফিঞ্চ ১/৪১, ম্যাক্সওয়েল ০/১১)

অস্ট্রেলিয়া: ৪৭.৫ ওভারে ২৮৫/২ (খাওয়াজা ৮৮, ফিঞ্চ ১৫৩*, ম্যাক্সওয়েল ১৯, মার্শ ১১*; ওয়াসিম ০/৬০, আব্বাস ০/;৩৮, আশরাফ ০/৪৫, হাসনাইন ০/৫৪, ইয়াসির ১/৬০, হারিস ০/১৮)

ফল: অস্ট্রেলিয়া ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: অ্যারন ফিঞ্চ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক