পারলেন না রাসেল, দারুণ বোলিংয়ে নায়ক সাইফ

শেষ ২ বলে প্রয়োজন ছিল ১২ রান। ছক্কা-চারে আন্দ্রে রাসেল নিতে পারলেন ১০। ঢাকা ডায়নামাইটসকে জেতাতে পারলেন না ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার। বারবার রঙ পাল্টানো ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে দারুণ এক জয় এনে দিলেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2019, 09:54 AM
Updated : 1 Feb 2019, 12:31 PM

বিপিএলে শুক্রবারের প্রথমম্যাচে ১রানে জিতেছেকুমিল্লা।১২৭ রানতাড়ায় ৯উইকেটে ১২৬রানে থামেঢাকা।সাকিব আলহাসানের দলএ নিয়ে টানাপাঁচ ম্যাচেহারল।

জয়ের জন্য শেষওভারে ঢাকারপ্রয়োজন ছিল১৩ রান। রাসেলযখন স্ট্রাইকপান তখন৪ বলেদরকার ছিল১২ রান। দুটিবল ডটখেলার পরসাইফকে ছক্কায়উড়ান বিস্ফোরকএই ব্যাটসম্যান। শেষবলটি ছিলইয়র্কার, ব্যাটেরকানায় লেগেআসে বাউন্ডারি। রুদ্ধশ্বাসউত্তেজনার ম্যাচে নাটকীয় এক জয়তুলে নেয়কুমিল্লা।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয়ক্রিকেট স্টেডিয়ামেটস হেরেব্যাট করতেনেমে তামিমইকবালের সঙ্গে৩৮ রানেরউদ্বোধনী জুটিগড়ে ফিরেযান এভিনলুইস।টানা দ্বিতীয়ম্যাচে গোল্ডেনডাকের স্বাদপান বাজেসময় কাটানোএনামুল হক।

শুরু থেকে বোলারদেরওপর চড়াওহওয়া তামিমকেফেরান শুভাগতহোম চৌধুরী। অফস্পিনারের বলে লং অনে দুর্দান্তএক ক্যাচনেন রুবেলহোসেন।২০ বলেদুই ছক্কাআর চারটিচারে ৩৮রান করেনতামিম। 

শামসুর রহমান ওইমরুল কায়েসকেদ্রুত ফেরানসাকিব।দলের বিপদেপথ দেখাতেপারেননি তিনঅলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি, থিসারা পেরেরাও সাইফ। শেষেরদিকে দুইছক্কায় ওয়াহাব রিয়াজের ১৬এবং মেহেদিহাসানের ২০রানের ওপরভর করেলড়াইয়ের পুঁজিগড়ে কুমিল্লা। উদ্বোধনীজুটির ৩৮রানই হয়েথাকে সেরাজুটি।

৩০ রানে ৪উইকেট নেনপেসার রুবেল। দুইস্পিনার সাকিবও সুনিলনারাইন নেনদুটি করেউইকেট।

ছোট রান তাড়ায়শুরুটা ভালোহয়নি ঢাকার। ২৯রানের মধ্যেপ্রথম চারব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ফেলে তারা।কাইরন পোলার্ডেরসঙ্গে ৪২রানের জুটিগড়ে ফিরেযান নারাইন।

রানের জন্য সংগ্রামকরতে হচ্ছিলপোলার্ড ওরাসেলকে।আফ্রিদির করাষোড়শ ওভারমেডেন খেলেসমীকরণ বেশকঠিন করেফেলেন রাসেল। জয়েরজন্য শেষ৪ ওভারেঢাকার দরকারছিল ৩৮রান।

সাইফে করা পরেরওভারে তিনটিডট খেলেচতুর্থ বলেফিরে যানপোলার্ড।মুখোমুখি হওয়াপ্রথম বলেইক্যাচ দিয়েফিরে যানসোহান।কোনোমতে হ্যাটট্রিকঠেকিয়ে দেনশুভাগত।লেগ বাইথেকে আসেএকটি রান। ১২বলের মধ্যেসেটাই ঢাকারপ্রথম রান!

শেষ ৩ ওভারেঢাকার দরকারছিল ৩৭রান।আফ্রিদিকে পরপর দুই বলে ছক্কাহাঁকান রাসেল। পরেরওভারে বেঁচেযান ওয়াহাবরিয়াজের ‘নো’বলের জন্য। সেইওভারের শেষবলে হাঁকানচার।শেষ বলপর্যন্ত ঢাকারআশা বাঁচিয়েরেখেছিলেন রাসেল। তবে দারুণবোলিংয়ে ম্যাচেব্যবধান গড়েদেন সাইফ। ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে২২ রানে৪ উইকেটনিয়ে জেতেনম্যাচ সেরারপুরস্কার।

১১ ম্যাচে অষ্টমজয়ে ১৬পয়েন্ট নিয়েশীর্ষে উঠেগেল কুমিল্লা। সমানম্যাচে ষষ্ঠহারের স্বাদপাওয়া ঢাকারপয়েন্ট ১০। শেষচারে যেতেহলে খুলনাটাইটানসের বিপক্ষে প্রাথমিক পর্বের শেষম্যাচে জিততেইহবে তাদের।

১২ পয়েন্ট নিয়েচার নম্বরেআছে রাজশাহীকিংস।খুলনার বিপক্ষেঢাকা হারলেশেষ চারেখেলবে মেহেদীহাসান মিরাজেরদল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স: ২০ওভারে ১২৭(তামিম ৩৮,লুইস ৮,এনামুল ০,ইমরুল ৭,শামসুর ২,আফ্রিদি ১৮,থিসারা ৯,সাইফ ২,মেহেদি ২০,ওয়াহাব ১৬,মোশাররফ ৪*;শাহাদাত ১-০-১২-০, শুভাগত৩-০-১৪-১,রাসেল ৪-০-২২-০, নারাইন৪-০-২৫-২,রুবেল ৪-০-৩০-৪, সাকিব৪-০-২৩-২)

ঢাকা ডায়নামাইটস: ২০ওভারে ১২৬/৯ (মিজানুর১৬, থারাঙ্গা০, রনি১, সাকিব৭, নারাইন২২, পোলার্ড৩৪, রাসেল৩০*, সোহান০, শুভাগত৪, রুবেল০, শাহাদাত১*; সাইফ৪-১-২২-৪,মেহেদি ৪-০-২২-২, ওয়াহাব৪-০-২২-১,মোশাররফ ৩-০-২৩-১, থিসারা১-০-৩-০, আফ্রিদি ৪-১-২৭-১)

ফল: কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স১ রানেজয়ী

ম্যান অব দাম্যাচ: মোহাম্মদসাইফ উদ্দিন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক