পার্থক্য স্যামি নয়, সামি: আল আমিন

ড্যারেন স্যামি ১৪ বলে অপরাজিত ৪৭ রানের ইনিংসে রাজশাহী কিংসকে এনে দিয়েছেন লড়াইয়ের পুঁজি। ৯ রানে ৪ উইকেট নিয়ে দলের জয়ে বড় অবদান রেখেছেন মোহাম্মদ সামি। আল আমিন হোসেন মনে করছেন, পাকিস্তানের পেসার গড়ে দিয়েছেন ম্যাচের ভাগ্য।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Nov 2017, 12:54 PM
Updated : 25 Nov 2017, 12:56 PM

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পেসার মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনের করা ইনিংসের শেষ ওভার থেকে চারটি ছক্কায় ৩২ রান নেন ম্যাচ সেরা স্যামি। অন্য দিকে, কুমিল্লার ইনিংসের ১৫তম ওভারে ২ রান দিয়ে তামিম ইকবাল, অলক কাপালী ও সাইফকে ফিরিয়ে দেন সামি।    

কুমিল্লার পেসার আল আমিন মনে করেন, সামির ওভারটি ম্যাচ থেকে ছিটকে দেয় তাদের।

“আমার মনে হয় না, (স্যামির ব্যাটিং) পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।”

“আমার মনে হয়, সামির ওই ওভারে আমরা ছিটকে গেছি। এর আগ পর্যন্ত কিন্তু আমরা ম্যাচে ছিলাম। একটা ওভারে ৩০/৩২ রান হতেই পারে। এটা ক্রিকেটের অংশ। ওদের যে বোলাররা বোলিং করেছে প্রায় সবারই ইকোনমি ১০/১১/১২। একমাত্র সামি ৪ ওভারে ৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট পেয়েছে। আমার মনে হয়, সামিই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।”

আল আমিন মনে করেন, দুই ইনিংসের দুটি ওভার ম্যাচ থেকে দূরে সরিয়ে দিয়েছে তাদের।

“বলতে পারেন সামির একটা ওভার আর সাইফের একটা ওভার হয়তো ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। একটা বাজে সিদ্ধান্ত হয়েছে আমাদের বিপক্ষে। পাওয়ার প্লে ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারিনি।”

রাজশাহীর টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান লুক রাইট মনে করেন, স্যামির শেষের ঝড় ছাড়া লড়াইয়ের পুঁজি পেতেন না তারা।  

“আমি মনে করি, স্যামি অনেক বড় পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। ওই ইনিংস ছাড়া আমরা হয়তো শেষ পর্যন্ত ১৬০ রান করতে পারতাম। সামি অবশ্যই খুব ভালো বোলিং করেছে। কিন্তু আমার মনে হয়, স্যামি ওদের ওপর প্রচণ্ড চাপ তৈরি করেছিল সেটাই শেষ পর্যন্ত বোলারদের উইকেট এনে দিয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক