ফিরে দেখা

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল, ফাইল ছবি
করোনাভাইরাসের মহামারীর বছরে একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের কোনো মামলার রায় দিতে পারেনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।
আনোয়ারা বেগমের মেয়ে সুমি আর জামাই রাজীব কাজ করতেন পোশাক কারখানায়। প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করেই তারা টিকে ছিলেন রাজধানীর বুকে। কিন্তু করোনাভাইরাসের মহামারী তাদের ঠেলে দিয়েছে অসম্ভব এক যুদ্ধে। কর্মহীন হয়ে পড়ায় গত অগাস্টে শহরের পাট চুকিয়ে তাদের ফিরে যেতে হয়েছে গ্রামে। সংসারের শেষ সম্বল লঞ্চের ডেকে তুলে তার সামনে নাতনিকে কোলে নিয়ে বসে আছেন আনোয়ারা বেগম। ছবি: মাহমুদ জামান অভি
ইতিহাসের পাতায় ২০২০ সাল চিহ্নিত হয়ে থাকবে মহামারীর বছর হিসেবে, যে বছর মৃত্যুভয়কে করে তুলেছে মানুষের জীবনসঙ্গী, বাধ্য করেছে জীবনধারা পাল্টে নিতে।
১৮ অগাস্ট ২০২০: গণপূর্তের উপসহকারী প্রকৌশলী এস এম ওয়ালিউল ইসলাম ঢাকার তোপখানা সড়কে হঠাৎ অচেতন হয়ে পড়েছিলেন, কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারীর এই সময়ে কেউ তার কাছে যায়নি। পরে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের সদস্য আরিফুল আরও একজনের সহযোগিতায় হাসপাতালে নিয়ে যান এই সরকারি কর্মকর্তাকে। কিন্তু তার আগেই তার মৃত্যু হয়।
ক্যালেন্ডারের পাতা ফুরোয়, বছর গড়ায়; বছরজুড়ে নানা ঘটনা ঘটে প্রতিবারই, তবে ২০২০ ছিল ভিন্ন; করোনাভাইরাস মহামারীকারে এমন অনেক ঘটনার সাক্ষী হয়েছে বাংলাদেশ, যা সবাই ভুলেই যেতে চাইবে। আলোচিত সেই সব ঘটনা ছবির ...
অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের এমন বিদায় চায়নি কেউ; তবু করোনাভাইরাস মহামারীকালে তাকে এভাবেই বিদায় জানাতে হয়।
বছরটি ছিল মহামারীর, ফলে মৃত্যুর মিছিলও ছিল দীর্ঘ। ২০২০ সালে রাজনীতি, চলচ্চিত্র, শিক্ষা, সাহিত্য, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি অঙ্গনের অনেককে হারিয়েছে বাংলাদেশ। প্রতিটি মৃত্যুই অপ্রত্যাশিত, তবে বিদায়ী বছরে অপ্রত্ ...
মহামারীকালে কুয়েতে চাকরি হারিয়ে ফিরে আসেন এই প্রবাসী কর্মীরা।
যাদের পাঠানো অর্থে বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত হচ্ছে মজবুত, সেই প্রবাসী শ্রমিকদের কষ্ট প্রকট হয়ে ফুটে উঠল বিদায়ী বছরে করোনাভাইরাস মহামারীতে।
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক