উষ্ণতম দিনের পথে ব্রিটেন

রেকর্ড সংরক্ষণ করা শুরু হওয়ার পর থেকে সবচেয়ে উষ্ণতম দিনের পথে রয়েছে ব্রিটেন, সোমবার প্রথমবারের মতো দেশটির তাপমাত্রা ৪০ সেলসিয়াস উঠতে পারে বলে আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 July 2022, 11:21 AM
Updated : 18 July 2022, 11:21 AM

এ পরিস্থিতিতে ট্রেন কোম্পানিগুলো অনেক ট্রেন সার্ভিস বাতিল করেছে এবং স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষগুলো অতিরিক্ত অ্যাম্বুলেন্স তৈরি রেখেছে, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ইউরোপ মহাদেশের অধিকাংশ অঞ্চলজুড়ে তীব্র তাপদাহ বয়ে যাচ্ছে, এতে কোথাও কোথাও তাপমাত্রা প্রায় ৪৫ সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠে গেছে আর পর্তুগাল, স্পেন ও ফ্রান্সের শুষ্ক গ্রামীণ এলাকাগুলোতে দাবানল আরও তীব্র হয়ে উঠেছে।    

সোমবার ও মঙ্গলবারের তামপাত্রা ২০১৯ সালে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক গার্ডেনে রেকডকৃত ৩৮ দশমিক ৭ সেলসিয়াসকে ছাড়িয়ে যাবে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ কারণে ব্রিটিশ সরকার ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করেছে।

সরকারের সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা মন্ত্রী কিট মল্টহাউস বিবিসিকে বলেছেন, “আমাদের সামনে একটি কঠিন ৪৮ ঘণ্টা আসছে।” 

লন্ডনের আন্ডারগ্রাউন্ড মেট্রো নেটওয়ার্ক সোমবার ও মঙ্গলবারের জন্য তাদের নেটওয়ার্কে সাময়িকভাবে দ্রুততার গতিসীমা বেঁধে দিয়েছে। যাত্রীদের শুধু জরুরি প্রয়োজনে ভ্রমণ করার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

দেশটির জাতীয় রেল নেটওয়ার্ক যাত্রীদের বাড়িতে অবস্থান করার আহ্বান জানিয়েছে। তারা জানায়, মঙ্গলবারের কিছু সময়জুড়ে উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় ইংল্যান্ড ও লন্ডনের মধ্যকার প্রধান একটি রুটসহ কয়েকটি রুটে সার্ভিস বন্ধ থাকবে।

নেটওয়ার্ক রেলের জেইক ক্যালি জানিয়েছেন, বুধবার থেকে স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল আবার শুরু হবে বলে আশা করছেন তারা। এ দিন তামপাত্রা কমে যাবে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

তবে সোম ও মঙ্গলবার আবহাওয়ার কারণে রেল অবকাঠামোর কতোট ক্ষয়ক্ষতি হয় তার ওপর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হওয়া নির্ভর করছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার কিছু স্কুল স্বাভাবিক সময়ের আগেই বন্ধ হয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে।

স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সংস্থা ইউকেএইচএসএ সোমবার ও মঙ্গলবার ইংল্যান্ডের তাপমাত্রাজনিত স্বাস্থ্য সতর্কতা লেভেল ফোর এ উন্নিত করেছে।

ব্রিটেনের আবহাওয়া দপ্তর লেভেল ফোর সতর্কতাকে ‘জাতীয় জরুরি অবস্থা’ বলে ব্যাখ্যা করেছে। তাপ প্রবাহ ‘অত্যন্ত তীব্র ও প্রলম্বিত হওয়া এর প্রভাব স্বাস্থ্য ও সামাজিক সেবা ব্যবস্থাকে’ ছাড়িয়ে যাওয়ার পরিস্থিতিতে এই সতর্কতা জারি করা হয় বলে জানিয়েছে তারা। এই লেভেলে উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা লোকজনই শুধু না সুস্থ-সবলরাও অসুস্থ হতে পারে এমনকি মারাও যেতে পারে বলে সতর্ক করেছে তারা।   

এ সময় দৈনন্দিন রুটিনে ও কাজের ধরনে ‘উল্লেখযোগ্য’ পরিবর্তন আনার পরামর্শ দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।পাশাপাশি উচ্চ তাপমাত্রায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় এরকম সরঞ্জামও নষ্ট হওয়ার উচ্চ ঝুঁকিতে থাকবে বলে জানিয়েছে তারা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক