ডেনমার্কে মার্কেটে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৩

ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেনের অন্যতম বৃহত্তম শপিং মলে বন্দুকধারীর গুলিতে তিন জন নিহত ও আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 July 2022, 04:09 AM
Updated : 4 July 2022, 05:19 AM

রোববারের এ গোলাগুলির ঘটনায় আহতদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা সঙ্কটজনক বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ আরও জানায়, তারা ২২ বছর বয়সী এক ডেনিশ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে এবং তার বিরুদ্ধে নরহত্যার অভিযোগ এনেছে।  

পুলিশ প্রধান সোয়ান টমেসন বলেন, দক্ষিণ কোপেনহেগেনের ফিল্ডস মলের এ গোলাগুলির ঘটনার উদ্দেশ্য পরিষ্কার নয়।

তিনি ‘সন্ত্রাসী কার্যকলাপের’ সম্ভবনা বাতিল করে দেননি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী মেটে ফেলেকসন বলেন, ডেনমার্ক একটি নির্দয় আক্রমণের শিকার হয়েছে।

রোববার রাতে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, “রোববার রাতের নির্দয় আক্রমণে বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছে। আরও বেশি আহত হয়েছে। নির্দোষ পরিবারগুলো কেনাকাটা করতে বা খেতে বাইরে বের হয়েছিল। সেখানে শিশু, কিশোর বয়সী ও প্রাপ্তবয়স্করা ছিল।”

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ট্যুও দে ফাঁস সাইকেল রেসের প্রথম তিনটি পর্ব আয়োজনের মধ্য দিয়ে ডেনমার্ক একটি আনন্দময় সপ্তাহ পার করেছিল, কিন্তু শেষে এ রকম একটি হামলার ঘটনায় পুরো দেশ স্তম্ভিত হয়ে পড়ে।    

ছবি: রয়টার্স

ফেলেকসন বলেন, “আমাদের সুন্দর ও এমনিতে অত্যন্ত নিরাপদ রাজধানী কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে পরিবর্তিত হয়ে গেল। এই কঠিন সময়ে আমি ডেনদের পরস্পরকে সমর্থন করার ও একত্রে দাঁড়ানোর জন্য উৎসাহিত করছি।

কোপেনহেগেনের পুলিশ জানিয়েছে, গোলাগুলির খবর পেয়ে রোববার শেষ বিকালের দিকে ফিল্ডস মলে সশস্ত্র পুলিশ কর্মকর্তাদের পাঠানো হয় এবং ভেতরে থাকা লোকজনকে সাহায্যের জন্য অপেক্ষা করতে বলা হয়।

স্থানীয় গণমাধ্যমের ফুটেজে আতঙ্কিত লোকজনকে মার্কেটটি থেকে দৌঁড়ে পালাতে দেখা গেছে।

স্থানীয় সময় বিকাল ৫টা ৪৮ মিনিটে সন্দেহভাজনকে একটি রাইফেল ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তার কোনো সহযোগী আছে কিনা তা খুঁজে দেখতে পুলিশ সন্ধ্যায় স্থানীয় জিল্যান্ড অঞ্চলে ব্যাপক তল্লাশি অভিযান শুরু করে।        

পুলিশ প্রধান টমেসন বলেন, “সে এক ছিল, এটি নিশ্চিতভাবে বলতে না পারা পর্যন্ত আমরা কোপেনহেগেনে বড় ধরনের তদন্ত ও ব্যাপক অভিযান চালিয়ে যাব।”

তিনি জানান, ওই বন্দুকধারী চল্লিশোর্ধ এক ব্যক্তি এবং এক তরুণ ও তরুণীকে হত্যা করে। আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়, তাদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা সঙ্কটজনক।

তদন্তে এখনও পর্যণত্ বর্ণবাদ বা অন্য কোনো উদ্দেশ্যের দিকে ইঙ্গিত করেনি, কিন্তু এগুলোও পরিবর্তিত হয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন টমেসন।  

সোমবার সকালে গ্রেপ্তার সন্দেহভাজনকে একজন বিচারকের সামনে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

ডেনিশ ট্যাবলয়েড বিটি যাচাই করা হয়নি এমন একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে, মাহদি আল ওয়াজনি নামের একজন প্রত্যক্ষদর্শী সেটি গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছে তারা। সেখানে দেখা গেছে, বড় একটি রাইফেলসহ এক ব্যক্তি মার্কেটের ভেতর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছে আর এদিক-সেদিক তাগ করছে।

ছবি: রয়টার্স

“তাকে খুব আক্রমণাত্মক দেখাচ্ছিল আর চিৎকার করে বিভিন্ন কিছু বলছিল,” বিটিকে বলেছেন আল ওয়াজনি।

প্রত্যক্ষদর্শী রেইগে লেভানদোভস্কি গণমাধ্যম টিভিটুকে বলেন, “মানুষ প্রথমে ভেবেছিল চোর, তখন হঠাৎ আমি গুলির শব্দ শুনলাম আর দোকানের ভেতরে কাউন্টারের পেছনে গিয়ে লুকালাম। সে সোজা ভিড়ের মধ্যে গুলি করছিল, ছাদ বা মেঝের দিকে না।”

বহুতল এই মার্কেটটি কোপেনহেগেনের কেন্দ্রস্থল থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে।

এর আগে গত সপ্তাহে ডেনমার্কের প্রতিবেশী নরওয়েতে আরেকটি গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। সেখানে নিঃসঙ্গ এক বন্দুকধারীর গুলিতে ২ জন নিহত হয়। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক