ইউক্রেইনের শস্য ‘‍চুরি,’ রুশ কার্গো জাহাজ আটক করল তুরস্ক

ইউক্রেইনের শস্যবাহী একটি রুশ কার্গো জাহাজ আটক করেছে তুরস্কের কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। এই শস্য চুরি করা হয়েছে বলে অভিযোগ ইউক্রেইনের।

>>রয়টার্স
Published : 3 July 2022, 06:01 PM
Updated : 3 July 2022, 06:01 PM

রোববার তুরস্কে নিযুক্ত ইউক্রেইনের রাষ্ট্রদূত একথা জানিয়েছেন।

ইউক্রেইন এর আগে তুরস্কের কাছে রুশ-পতাকাবাহী জিবেক জোলি কার্গো জাহাজ আটক করার অনুরোধ জানিয়েছিল। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের পাওয়া একটি সরকারি নথিতে দেখা গেছে এমনটাই।

রয়টার্সের সাংবাদিকরা রোববার কৃষ্ণ সাগরে তুরস্কের কারাসু বন্দরের বাইরে এবং তীর থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে জিবেক জোলি জাহাজটিকে নোঙর করতে দেখেছেন।

জাহাজটিতে কারও আনাগোনার লক্ষণ দেখা যায়নি এবং আশেপাশে কোনও জাহাজও দেখা যায়নি।

ইউক্রেইনের জাতীয় টিভিতে দেশটির তুরস্কে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ভাসিল বডনার বলেন, “আমরা পূর্ণ সহযোগিতা করছি। জাহাজটি বর্তমানে বন্দরের প্রবেশপথে দাঁড়িয়ে আছে। সেটিকে তুরস্কের কাস্টমস কর্তৃপক্ষ আটক করেছে।”

সোমবার তদন্তকারীদের একটি বৈঠকে জাহাজটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এবং ইউক্রেইন জাহাজের শস্য জব্দ করা হবে বলে আশা করছে।

রাশিয়া গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেইনে আগ্রাসন শুরুর পর থেকে রুশ বাহিনীর দখলে চলে যাওয়া অঞ্চলগুলো থেকে শস্য চুরি করছে বলে অনেক দিন থেকেই অভিযোগ করে আসছে কিইভ।

তবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেইনের এই শস্য চুরির এমন অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে এসেছে ক্রেমলিন।

ইউক্রেইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা দেশটির সমুদ্র বিষয়ক প্রশাসনের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য জানিয়ে রয়টার্সকে বলেন,জিবেক জোলি জাহাজে গত শুক্রবার প্রথম দক্ষিণ ইউক্রেইনের অধিকৃত বারদিয়ানস্ক বন্দর থেকে প্রায় ৪ হাজার ৫শ’ টন ইউক্রেইনীয় শস্য তোলা হয়।

তবে এ বিষয়ে মন্তব্যর জন্য তুরস্কের সাকরায়া বন্দর কর্তৃপক্ষের কাউকে তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি। তাছাড়া, তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ও এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু বলেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক