অর্থনৈতিক সংকটের মুখে আর্জেন্টিনার অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগ

অর্থনৈতিক সংকট তীব্র আকার ধারণ করায় হঠাৎ করেই পদত্যাগ করেছেন আর্জেন্টিনার অর্থমন্ত্রী মার্টিন গুজম্যান।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 July 2022, 01:03 PM
Updated : 3 July 2022, 01:03 PM

উত্তরসুরি বেছে নিতে ক্ষমতাসীন জোটকে একটি রাজনৈতিক বোঝাপড়ায় আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বিবিসি জানায়, অর্থমন্ত্রী পদে ২০১৯ সালের শেষ দিক থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন গুজম্যান।

আর্জেন্টিনার ঋণ পুনর্গঠন নিয়ে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এর সঙ্গে আলোচনায় তিনি নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন।

৬০% মুদ্রাস্ফীতি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে আর্জেন্টিনা। ডলারের বিপরীতে দেশটির মুদ্রাও দুর্বল হয়ে পড়েছে।

সেইসঙ্গে বিশ্বে খাবার ও জ্বালানির দামও বেড়ে গেছে। এ পরিস্থিতিতে দেশে সপ্তাহখানেকের অর্থনৈতিক টানাপোড়েনের পর গুজম্যান পদত্যাগ করলেন।

এমন একটি সময়ে তার পদত্যাগ আর্জেন্টিনার অর্থনৈতিক নীতির ভবিষ্যৎ নিয়ে বড় ধরনের প্রশ্ন সৃষ্টি করেছে। প্রেসিডেন্ট আলবার্তো ফার্নান্দেজকে লেখা এক চিঠিতে গুজম্যান সরকারের ভেতরে বিভক্তির ইঙ্গিত দিয়েছেন।

কিন্তু প্রেসিডেন্ট ফার্নান্দেজের সঙ্গে যে তার উপপ্রধান ক্রিস্টিনা ফার্নান্দেজ ডি কির্শনারের বনিবনা নেই সেটি কারও অজানা নয়। কীভাবে দেশের অর্থনৈতিক সমস্যা মোকাবেলা করা যায় তা নিয়ে তাদের মধ্যে মতবিরোধ আছে।

আদতে প্রেসিডেন্ট ফার্নান্দেজ তার নিজ সরকারের অর্থনৈতিক নীতি নিয়ে এক ভাষণে সমালোনা করার পর অর্থমন্ত্রী গুজম্যান তার পদত্যাগ ঘোষণা করেন।

২০০৭ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট পদে আছেন ফার্নান্দেজ। দেশের জনগণের অর্থনৈতিক দুর্দশা লাঘবে সরকারের ব্যর্থতার সমালোচক তিনি।

ফার্নান্দেজ ও তার সমর্থকরা দেশের দুর্দশার জন্য মার্টিন গুজম্যানের অর্থনৈতিক নীতিই দায়ী বলে মনে করেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক