ভারতে ৬ বছর বয়সীরাও কোভিড টিকার আওতায়

করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা একটু একটু করে বাড়তে থাকার মধ্যে ভারত ১২ বছরের কম বয়সীদের জন্য দেশীয়ভাবে তৈরি দুটি কোভিড টিকা অনুমোদন করেছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 April 2022, 04:43 PM
Updated : 26 April 2022, 04:43 PM

ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন টিকা ৬ থেকে ১২ বছর বয়সীদের জন্য জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোল জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই)। এক টুইটে একথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ড্যভিয়া।

এর আগে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের কোভ্যাক্সিন টিকাদানের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এবার ছয় বছর বয়সীদেরকেও কোভ্যাক্সিনের আওতায় আনা হল।

তবে কেবল কোভ্যাক্সিনই নয়, অনুমোদন পেয়েছে আরও দুটো টিকা। এর একটি হচ্ছে, করবেভ্যাক্স। এটি ৫ থেকে ১২ বছর বয়সীদের জন্য জরুরিভিত্তিতে প্রয়োগের ছাড়পত্র পেয়েছে।

আর অপরটি হচ্ছে, জাইডাস ক্যাডিলা। ১২ বছর ঊর্ধ্বে সবার জন্য এই টিকা জরুরিভিত্তিতে প্রয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। বিবিসি জানায়, ভারতে বর্তমানে ১২ থেকে ১৪ বছর বয়সীদেরকে করবেভ্যাক্স টিকা দেওয়া হচ্ছে।

তবে কোভ্যাক্সিন কিংবা করবেভ্যাক্স এর এই জরুরি অনুমোদন পাওয়া মানেই তাৎক্ষণিকভাবে ১২ বছরের কম বয়সীদের টিকাকরণ শুরু হয়ে যাবে তা নয়।

টিকাকরণ শুরুর আগে টিকা দু’টিকে ইমিউনাইজেশন বিষয়ক ন্যাশনাল টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজরি গ্রুপ এর সবুজ সংকেত পেতে হবে।

তাছাড়া, শিশুদের উপর কোভ্যাক্সিন প্রয়োগের জন্য বেশ কিছু শর্ত আরোপ করেছে ডিসিজিআিইI। উল্লেখ করা হয়েছে, শিশুদেরকে এই টিকা দেওয়ার আগে প্রয়োজনীয় তথ্য যাচাই করতে হবে।

নিয়মিত ডেটা সার্ভে করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা ভারত বায়োটেককে।প্রতি ১৫ দিন অন্তর এই সার্ভে খতিয়ে দেখা হবে।

আগামী দু'মাস এই সার্ভে চলবে বলেও জানিয়েছে কেন্দ্র। এরপর পাঁচমাস পরপর শিশুদের উপর কোভ্যাক্সিনের প্রভাব এবং প্রতিক্রিয়া খতিয়ে দেখা হবে।

ভারতে কোভিডের চতুর্থ ঢেউ একটু একটু করে ছড়াতে শুরু করার মধ্যেই খুলেছে স্কুল। কিশোর-কিশোরীরা স্কুল যাওয়া শুরু করেছে।

এমন পরিস্থিতিতে তাদের মধ্যে করোনাভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কাও বাড়ছে। তাই দ্রুতই তাদের টিকাকরণ সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে কেন্দ্র সরকারের।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক