তালেবানকে ‘ভাই’ ডাকলেন হামিদ কারজাই

তালেবান সদস্যদের ভাই বলে অভিহিত করেছেন আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Dec 2021, 11:23 AM
Updated : 3 Dec 2021, 11:23 AM

বিবিসি-কে একটি একান্ত সাক্ষাৎকার দিয়েছেন কারজাই। এই সাক্ষাৎকারেই তিনি তালেবান সদস্যদের ‘ভাই’ সম্বোধন করেন।

আফগানিস্তানের নতুন তালেবান শাসকদের সঙ্গে ফলপ্রসূ বৈঠক হয়েছে জানিয়ে কারজাই বলেছেন, দেশের বিরোধপূর্ণ ইস্যুগুলো নিয়ে বৈঠকে আলোচনা করেছেন তিনি।

সাক্ষাৎকারে কারজাই বলেন, “আমি তালেবানকে ভাইয়ের মতো দেখি, অন্য সব আফগানকেও ভাই হিসেবে দেখি।”

প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনের সময়েও তালেবানকে ভাই হিসেবে দেখেছেন বলে জানান কারজাই। তিনি বলেন, তখন যে উদ্দেশ্য নিয়ে তালেবানকে ভাই বলেছেন, এখনও সেই উদ্দেশ্য নিয়েই তাদের ভাই বলে সম্বোধন করছেন।

তাছাড়া, তালেবান ক্ষমতা দখলের পর যারা আফগানিস্তান ছেড়েছেন, তাদের ফিরে আসারও আহ্বান জানিয়েছেন কারজাই।

তিনি বলেন, “এটা আমাদের দেশ। আমরা এ মাটির সন্তান। আমাদের এই মাটি ছেড়ে যাওয়া উচিত না। দেশের মঙ্গলের জন্য এখানেই থাকা উচিত। যারা দেশ ছেড়ে চলে গেছেন, তাদের সবাইকে ফিরে এসে দেশ গড়ে তোলার আহ্বান জানাচ্ছি।”

তার কথায়, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান পুনর্গঠনে সবার অংশগ্রহণমূলক একটি সরকার গড়ার রাজনৈতিক প্রক্রিয়া শুরু করা দরকার, যে সরকার সব আফগানের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে।

এ প্রসঙ্গে কারজাই বলেন, “এটি আপনাদের দেশ...চলুন একসঙ্গে এ দেশকে গড়ে তুলি, একসঙ্গে কাজ করি... আমি তাদের (তালেবান) সঙ্গে বৈঠক করেছ। তাদের সঙ্গে বহু ইস্যুতে ভাল মতবিনিময় হয়েছে।”

বিবিসি’র সাক্ষাৎকারে নারী ও মেয়েশিশুদের চাকরি এবং শিক্ষা নিয়েও প্রশ্ন করা হয়েছিল কারজাইকে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এ নিয়ে কথা হয়েছে। নারীরা যাতে কর্মক্ষেত্র এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরতে পারে, সে ব্যাপারে তালেবান রাজি হয়েছে।

যারা স্কুলে যেতে পারছে না, সেইসব মেয়েশিশুর উদ্দেশ্যে কারজাই বলেন, “বাইরে যাও, পড়াশোনা কর, সাহসী হও। আমরা তোাদের পড়াশুনার নিশ্চয়তা দেব। এই সুযোগ আসবে।”

তাছাড়া, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান পুনর্গঠনে আন্তর্জাতিক মহল বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন কারজাই। তিনি বলেন, “তালেবানের সঙ্গে কাজ করতেই হবে, তারা এখন সরকারে আছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক