দিল্লিতে ৬ বছরের মধ্যে বায়ুদূষণ সবচেয়ে খারাপ পর্যায়ে

ভারতের সরকারি তথ্যমতে, রাজধানী দিল্লিতে অন্তত ছয় বছরের মধ্যে এ বছর নভেম্বরে বায়ু দূষণের মাত্রা সবচেয়ে খারাপ পর্যায়ে পৌঁছেছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Dec 2021, 02:13 PM
Updated : 1 Dec 2021, 02:13 PM

এবার দিল্লিতে ভয়াবহ দূষণ ছিল ১১ দিন, যা ২০১৬ সালের নভেম্বরের ১০ দিনের দূষণের চেয়েও ছিল বেশি মাত্রার।

সরকারি তথ্যে আরও দেখা গেছে, নভেম্বর মাসটিতে একদিনের জন্যেও ‘ভালো’ বাতাসের দিন পায়নি দিল্লির বাসিন্দারা।

বিবিসি জানায়, দিল্লিতে নভেম্বরে ভয়াবহ মাত্রার এই দূষণের জন্য আশেপাশের রাজ্যগুলোতে খড় পোড়ানো এবং দিওয়ালি উৎসবকে দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

 ২০১৫ সালে ভারতের কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ড বাতাসের মানের তথ্যের হিসেব রাখা শুরুর পর থেকে এই সময়েই দিল্লিতে সবচেয়ে বেশি দূষণ দেখা গেছে।

বাতাসের মানের পূর্বাভাস দেওয়া সংস্থা এসএএফএআর -এর প্রতিষ্ঠাতা ড. গুফরান বলেন, বৃষ্টিপাতের মৌসুমে দেরি হওয়ার কারণে ফসলের নাড়া পোড়াতে দেরি হয়েছে আর নভেম্বরে ছিল দিওয়ালি।

তিনি বলেন, “এসবই গত কয়েক বছরের তুলনায় এবছর নভেম্বরে বাতাসের মান সবচেয়ে খারাপ হওয়ার মূল কারণ।”

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার স্যাটেলাইটের তথ্যানুযায়ী, ১ অক্টোবর থেকে ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত পাঞ্জাব, হরিয়ানা এবং উত্তর প্রদেশে নাড়া পোড়ানোর ৯০, ৯৮৪টি আগুন দেখা গেছে।

জ্বালানি, পরিবেশ এবং পানি বিষয়ক কাউন্সিল (সিইইডব্লিউ) এর এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত পাঁচ বছরের মধ্যে এটিই সর্বোচ্চ সংখ্যক আগুনের ঘটনা। তাছাড়া, মানুষ নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বাজি পুড়িয়ে দিওয়ালি উৎসব পালনের কারণেও দিল্লির বাতাসের মান খারাপ হয়েছে।

নতুন ফসল চাষ করার জন্য প্রতিবছরই নাড়া পোড়ায় ভারতের কৃষকরা। এতে দূষিত হয় বাতাস। বাতাসের মান ঠিক রাখতে ফসলের নাড়া পোড়ানো নিষিদ্ধ করা হলেও এর প্রয়োগ ঠিকমত হয় না।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক