যুক্তরাষ্ট্রে গাড়ি থেকে ছড়িয়ে পড়া ডলার নিয়ে উন্মত্ততা

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি আন্তঃরাজ্য মহাসড়কে টাকাবাহী কাভার্ড ভ্যান থেকে পড়ে রাস্তাজুড়ে ছড়িয়ে যাওয়া ডলার নিয়ে চরম উন্মত্ততা দেখা গেছে, এ সময় সড়কটিতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Nov 2021, 05:01 PM
Updated : 20 Nov 2021, 05:07 PM

স্থানীয় সময় শুক্রবার রাজ্যটির সান ডিয়াগো কাউন্টির ইন্টারস্টেট ফাইভ মহাসড়কে ঘটনাটি ঘটে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা ভিডিওতে দেখা গেছে, রাস্তাজুড়ে ও আশপাশে ছড়িয়ে পড়া ডলার তুলতে মানুষ ছুটছে। 

পুলিশ জানিয়েছে, ডলার তোলার উন্মত্ততায় চালকরা গাড়ি ফেলে রেখে রাস্তায় নেমে গেলে থেমে থাকা গাড়িতে রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়, অন্য যারা ডলার নিয়ে সরে পড়েছেন তাদের অর্থ ফেরত দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সময় প্রায় সোয়া ৯টার দিকে চলন্ত অবস্থায় একটি সাঁজোয়া যানের দরজা হঠাৎ করে খুলে গিয়ে বেশ কিছু ডলারের ব্যাগ পড়ে যায়, সেগুলো খুলে রাস্তাজুড়ে ডলার ছড়িয়ে পড়ে বাতাসে উড়তে থাকে।

“যে কোনো ভাবেই হোক একটি সাঁজোয়া গাড়ি থেকে রাস্তায় টাকা পড়ে যায়,” বলেন ক্যালিফোর্নিয়া হাইওয়ে পেট্রল (সিএইচপি) কর্মকর্তা জেম বেনকোর্ট। 

“চারদিকে নোট উড়ছিল,” বলেন তিনি। 

ফিটনেস প্রচারক ডেমি ব্যাগবির ধারণ করা একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, রাস্তার মধ্যে অনেক গাড়ি থেমে আছে, যারা সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন তারা চারদিকে ছড়িয়ে থাকা এক ডলার ও ২০ ডলারের নোটের গাদা তুলে সেগুলো নিয়ে খেলছেন।

“এটি আমার দেখা সবচেয়ে উন্মত্ত কাণ্ড,” ভিডিও ক্লিপে ব্যাগবিকে এমনটি বলতে শোনা যায়, তারপর দেখা যায় সচরাচর ব্যস্ত ওই সড়কটিতে সব গাড়ি থেমে দাঁড়িয়ে আছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

হাইওয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এফবিআই ঘটনার তদন্ত করছে এবং যারা টাকা নিয়ে গেছেন তাদের তা ফেরত দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা বেনকোর্ট জানিয়েছেন, যারা টাকা তোলার জন্য থেমেছেন তাদের ‘বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হতে পারে’।  

শুক্রবার বিকালে সিএইচপির সার্জেন্ট কার্টিস মার্টিন জানিয়েছেন, প্রায় এক ডজন লোক তাদের নেওয়া টাকা পুলিশের কাছে ফেরত দিয়ে গেছে।

“লোকজন বহু টাকা নিয়ে গেছে,” বলেছেন তিনি; তবে কত টাকা খোয়া গেছে আর লোকজন কত ফেরত দিয়েছে সে সংখ্যাগুলো জানাননি তিনি।

 
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক