অবিলম্বে পাতাল রেলের বন্যা নিয়ন্ত্রণ পর্যালোচনার নির্দেশ চীনের

চীনের মধ্যাঞ্চলে প্রবল বৃষ্টিপাতে পাতাল রেলপথ ডুবে গিয়ে প্রায় এক ডজন লোকের মৃত্যুর পর অবিলম্বে নগরীর পরিবহন ব্যবস্থার বন্যা নিয়ন্ত্রণ পর্যালোচনা করে আরও উন্নত করতে স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 July 2021, 04:40 AM
Updated : 22 July 2021, 06:00 AM

বৃহস্পতিবার সরকারি এই নির্দেশের সময়ও ওই অঞ্চলটিতে ভারি বৃষ্টিপাত অব্যাহত ছিল বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছেন।

দেশটির হেনান প্রদেশে টানা ষষ্ঠ দিনের মতো বৃষ্টি অব্যাহত আছে আর তা উত্তরদিকে প্রতিবেশী হেবেই প্রদেশের দিকে বিস্তৃত হচ্ছে। টানা বৃষ্টিতে হেনানের বিস্তৃত এলাকা তলিয়ে গেছে। এতে ওই পাতাল রেলে আটকা পড়ে মারা যাওয়া ১২ জনসহ প্রদেশটিতে প্রায় ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটির পরিবহন মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলোকে অবিলম্বে রেলের অদৃশ্য ঝুঁকিগুলো পর্যালোচনা করে তা শোধরাতে হবে।

মন্ত্রণালয় বলেছে, “অত্যধিক তীব্র ঝড়ের মতো যেকোনো অস্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ট্রেন চলাচল স্থগিত রেখে, যাত্রীদের সরিয়ে নেওয়া ও স্টেশনগুলো বন্ধ করে দেওয়ার মতো জরুরি পদক্ষেপ নিতে হবে তাদের।” 

চলতি সপ্তাহের প্রথমদিকে হেনানের প্রাদেশিক রাজধানী ঝাংঝৌয়ের তলিয়ে যাওয়া পাতাল রেল থেকে কয়েকশত লোককে উদ্ধার করা হয়।

হুয়াং হি নদীর তীরবর্তী এক কোটি ২০ লাখ বাসিন্দার এ শহরটি রাজধানী বেইজিং প্রায় ৬৫০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে। গণমাধ্যমে আসা ছবিতে দেখা গেছে, পাতাল রেলের যাত্রীরা ট্রেনের অন্ধকার কেবিনগুলোর ভেতরে বুক সমান পানিতে দাঁড়িয়ে আছেন। একটি ভূগর্ভস্থ স্টেশন বড় একটি উথালপাথাল পুকুরে পরিণত হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যা থেকে মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত ঝাংঝৌতে ৬১৭ দশমিক ১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে যা শহরটির বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাত ৬৪০ দশমিক ৮ মিলিমিটারের প্রায় সমান।

বুধবার সন্ধ্যায় বেইজিংয়ের প্রায় ১৪০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে হেবেই প্রদেশের বাওদিং শহরে টর্নেডোতে আরও দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক