ফিলিস্তিনিদের সাহায্য বন্ধ করল ইউএসএইড

ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিম তীর এবং গাজায় সব ধরনের সাহায্য বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএইড)।

>>রয়টার্স
Published : 1 Feb 2019, 03:25 PM
Updated : 1 Feb 2019, 03:25 PM

যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তা শুক্রবার একথা জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র গতবছর ফিলিস্তিনে কোটি কোটি ডলারের সাহায্য বন্ধ করার পর ইউএসএইডের সাহায্য বন্ধের এ ঘোষণা এল।

এর আওতায় ফিলিস্তিনি নিরাপত্তা বাহিনীর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া প্রায় ৬ কোটি ডলারের সাহায্যও বন্ধ হয়ে যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাস বিরোধী নতুন একটি আইনে শঙ্কিত ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ নিজে থেকেই আর কোনো সাহায্য নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

মার্কিন কংগ্রেসের নতুন এন্টি-টেরোরিজম ক্ল্যারিফিকেশন অ্যাক্ট (এটিসিএ) এর আওতায় যুক্তরাষ্ট্র সেদেশের আদালতেই বিদেশি সাহায্য গ্রহীতাদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস-বিরোধী মামলা করতে পারবে।

সাহায্য নিয়ে এ আইনি প্যাঁচে পড়ার আশঙ্কায় উদ্বিগ্ন ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ। ফিলিস্তিন জঙ্গি হামলা উস্কে দিচ্ছে বলে অভিযোগ ইসরায়েলের। যদিও ফিলিস্তিন এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

শুক্রবার সাহায্য বন্ধের ঘোষণা দিয়ে এক মার্কিন কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, “ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের অনুমতিতে আমরা পশ্চিম তীর এবং গাজায় ‘এটিসিএ’ তে উল্লিখিত কর্তৃপক্ষের আওতাধীন কিছু প্রজেক্ট এবং সাহায্য কর্মসূচি বন্ধ করে দিয়েছি।”

তিনি বলেন, “পশ্চিম তীর এবং গাজায় ইউএসএইড এর সব সহায়তাই বন্ধ হয়েছে।”

তবে এ সহায়তা কতদিন বন্ধ থাকবে তা স্পষ্ট জানা যায়নি। কারণ, সাহায্য বন্ধ হলেও ফিলিস্তিনে ইউএসএইড এর মিশন বন্ধ করা হচ্ছে না বলেই জানিয়েছেন ওই মার্কিন কর্মকর্তা।

ফিলিস্তিন এলাকাগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশি সাহায্য কর্মসূচি পরিচালনাকারী প্রধান সংস্থাই হচ্ছে ইউএসএইড।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক