স্পাইওয়্যার ঠেকাতে অ্যাপলের নতুন ‘লকডাউন মোড’

স্পাইওয়্যার নজরদারির ঝুঁকিতে আছেন এমন ব্যবহারকারীদের সাইবার হামলা থেকে বাঁচাতে নতুন নিরাপত্তা ফিচারের ঘোষণা দিয়েছে প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 July 2022, 07:35 AM
Updated : 7 July 2022, 07:35 AM

আসছে শরতে নতুন অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে নতুন ‘লকডাউন মোড’ উন্মুক্ত করবে আইফোন নির্মাতা। আইফোন, আইপ্যাড এবং ম্যাক কম্পিউটারের সবগুলো মডেলেই কাজ করবে নতুন ফিচারটি।

লকডাউন মোড ডিভাইসের নির্দিষ্ট কিছু ফিচার ব্লক করে দেবে এবং অপরিচিত ব্যক্তির ফোন কলের পথ বন্ধ রাখবে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অধিকারকর্মী, জনপ্রতিনিধি এবং সংবাদকর্মীদের অ্যাপল ডিভাইস স্পাইওয়্যার হামলার শিকার হওয়ার পর নতুন নিরাপত্তা ফিচারটি নির্মাণ করেছে অ্যাপল।

পাশাপাশি, ইসরায়েলের এসএসও গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলাও করেছে অ্যাপল। ‘পেগাসাস’ স্পাইওয়্যারের নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে দেড়শ দেশের ভুক্তভোগীদের ওপর সাইবার হামলা চালানোর অভিযোগ এনেছে কোম্পানিটি।

অ্যাপলের ও তৈরি আইফোন ও গুগলের অ্যান্ড্রয়েড– উভয় ডিভাইসেই সংক্রমিত হওয়ার সক্ষমতা ছিল এনএসও গ্রুপের পেগাসাস স্পাইওয়্যারের।

এনএসও গ্রুপ দাবি করে আসছে, তাদের স্পাইওয়্যারগুলো বানানো হয়েছিল উগ্রপন্থী সন্ত্রাসী আর অপরাধীদের ওপর নজর রাখার জন্য এবং কেবল সামরিক বাহিনী, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং বিভিন্ন দেশের গোয়েন্দা সংস্থার কাছেই পণ্য বিক্রি করেছে তারা।

গত বছরের জুলাই মাসে বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির ডিভাইসে পেগাসাসের উপস্থিতি আবিষ্কারের পর অ্যাপলও সমালোচনার মুখে পড়েছিল। ব্যবহারকারীদের গোপনতা ও নিরাপত্তা রক্ষায় অ্যাপলের ভূমিকা ও সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল।

সে সময়ে দ্রুত একটি সফটওয়্যার আপডেট উন্মুক্ত করে সকল ডিভাইসে দুর্বলতা সমাধানের চেষ্টা করেছিল গোপনতার প্রশ্নে আন্তরিক বলে পরিচিত এই কম্পানি।

পেগাসাস কেলেঙ্কারীর জেরেই অ্যাপলের নতুন নিরাপত্তা ফিচার ‘লকডাউন মোড’-এর আবির্ভাব বলে উঠে এসেছে বিবিসির প্রতিবেদনে। আইফোন নির্মাতার দাবি, বর্তমান বাজারের সকল স্পাইওয়্যারের বিপরীতে ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা দিতে পারবে ফিচারটি।

লকডাউন মোড যে ডিভাইসের যে বিষয়গুলোকে প্রভাবিত করবে, সেগুলো হলো:

>> মেসেজ: ছবি বা ইমেজ ফাইল বাদে মেসেজের সিংহভাগ ফাইল অ্যাটাচমেন্ট ফিচার ব্লক করে রাখা হয়েছে এতে। ‘লিংক প্রিভিউ’-এর মতো ফিচারগুলো ডিজএবল করে রাখা হয়েছে।

>> ওয়েব ব্রাউজিং: জাভাস্ক্রিপ্ট কম্পাইলেশনের মতো বেশ কিছু জটিল ওয়েব প্রযুক্তি ডিজএবল করে রাখা হয়েছে লকডাউন মোডে। তবে, ব্যবহারকারী চাইলে নির্ভরযোগ্য ওয়েবসাইট বিকল্প হিসেবে চিহ্নিত করে দিতে পারবেন।

>> ফোন কল: ব্যবহারকারী প্রথমে যদি নিজে যোগাযোগের চেষ্টা না করে থাকেন তবে ফেইসটাইম কলের মতো অন্যান্য ‘ইনকামিং ইনভাইটেশন’ ও কল ব্লক করে দেবে নতুন নিরাপত্তা ফিচারটি।

>> আইফোন লক থাকা অবস্থায় তারের মাধ্যমে কম্পিউটার বা অন্য কোনো অ্যাক্সেসরিজের সঙ্গে আইফোনের সংযোগ স্থাপন করা যাবে না।

‘ডিভাইস সেটিংস’ থেকে সকল ব্যবহারকারী ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন বলে জানিয়েছে অ্যাপল। তবে, কেবল প্রয়োজনের ভিত্তিতে ফিচারটি ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে কোম্পানিটি। বিশেষ করে, সংবাদকর্মী বা কর্তৃত্ববাদী সরকারের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ভূমিকায় থাকা জনপ্রতিনিধিদের মতো যারা ‘ভাড়াটে স্পাইওয়্যার হামলার’ ঝুঁকিতে আছেন, ফিচারটি তাদের জন্যই বলে জানিয়েছে অ্যাপল।

“যদিও বেশিরভাগ ব্যবহারকারী কখনোই পরিকল্পিত সাইবার হামলার শিকার হবেন না, তবে যে অল্পসংখ্যক ব্যবহারকারী এই ঝুঁকিতে আছেন তাদের রক্ষা করতে আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাবো,”-- বলেছেন অ্যাপলের নিরাপত্তা প্রকৌশল এবং স্থাপত্য প্রধান ইভান ক্রিস্টিচ।

নতুন নিরাপত্তা ফিচারের পাশাপাশি ‘এথিকাল হ্যাকারদের’ জন্য পুরস্কারের আকারও দ্বিগুণ করেছে অ্যাপল। লকডাউন মোডের কোনো নিরাপত্তা দুর্বলতা চিহ্নিত করতে পারলে তার জন্য ২০ লাখ ডলার পুরস্কার দেবে অ্যাপল।

পাশাপাশি স্পাইওয়্যারের অপব্যবহার উন্মোচনে নিয়োজিত সংস্থাগুলোকে এক কোটি ডলার অর্থসহযোগিতা দেওয়ার ঘোষণাও দিয়েছে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

অন্যদিতে, গত বছরের নভেম্বর মাসেই এনএসও গ্রুপকে কালো তালিকাভূক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। এনএসওর তৈরি সফটওয়্যার ‘বিদেশি সরকারগুলোকে নিজস্ব সীমানা পেরিয়ে দমন-পীড়ন চালাতে দিয়েছে যা কর্তৃত্ববাদী সরকারগুলোর ভিন্নমতালম্বী, সংবাদকর্মী এবং অধিকারকর্মীদের টার্গেট করার নীতির সঙ্গে’ সামঞ্জস্যপূর্ণ’ বলে মন্তব্য মার্কিন সরকারের।

এনএসও বিরুদ্ধে মেটার মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপও মামলা করছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। হোয়াটসঅ্যাপের অভিযোগ, এনএসও মেসেজিং প্ল্যাফর্মটিকে পেগাসাসের বাহক হিসেবে ব্যবহার করেছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক