শত কোটি চীনা নাগরিকের তথ্য ‘হ্যাকারের হাতে’

চীনের সাংহাই শহরের পুলিশের কাছ থেকে একশ কোটি চীনা নাগরিকের ব্যক্তিগত তথ্য চুরির দাবি করেছেন একজন হ্যাকার। হ্যাকারের কথিত নাম ‘চায়নাড্যান’।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 July 2022, 09:34 AM
Updated : 5 July 2022, 09:34 AM

প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা বলছেন, বিষয়টি সত্য হলে ডেটা চুরির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ঘটনাগুলোর একটি হবে এটি।

‘ব্রিচ ফোরামস’ নামে পরিচিত হ্যাকারদের এক ফোরামে গত সপ্তাহে পোস্ট করেন ‘চায়নাড্যান’ নামে চিহ্নিত এই অজ্ঞাতনামা ইন্টারনেট ব্যবহারকারী।

ওই ফোরামে ১০ বিটকয়েনের বিনিময়ে চীনা নাগরিকদের ২৩ টেরাবাইটেরও বেশি তথ্য বিক্রি করতে চান তিনি, যার মূল্যমান প্রায় দুই লাখ ডলার।

“২০২২ সালে ‘সাংহাই ন্যাশনাল পুলিশ (এসএইচজিএ)’-এর ডেটাবেইজ ফাঁস হয়েছে। ওই ডেটাবেইজে কয়েকশ কোটি চীনা নাগরিকের বেশ কয়েক টেরাবাইট ডেটা ও তথ্য রয়েছে।” --পোস্টে বলেছেন হ্যাকার।

“ডেটাবেইজে একশ কোটি চীনা জাতীয় নাগরিকের তথ্য ও কয়েকশ কোটি মামলার নথি রয়েছে, যার মধ্যে আছে: নাম, ঠিকানা, জন্মস্থান, জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম্বার, মোবাইল নাম্বার এবং অপরাধ/মামলার বিবরণী।”

পোস্টের সত্যতা যাচাই করতে পারেনি বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

এ প্রসঙ্গে রয়টার্স সোমবার সাংহাই সরকার এবং পুলিশ বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাদের কাছ থেকেও কোনো সদুত্তর মেলেনি।

স্বঘোষিত হ্যাকার ‘চায়নাড্যান’-এর সঙ্গেও যোগাযোগ করতে পারেনি রয়টার্স।

পোস্টটি নিয়ে সপ্তাহজুড়ে বিশদ আলোচনা হয়েছে চীনের মাইক্রোব্লগিং সাইট ‘ওয়েইবো’ এবং সামাজিক মাধ্যম ‘উইচ্যাট’-এ, যেখানে বিষয়টির সত্যতা নিয়ে নিজেদের শঙ্কার কথা জানিয়েছেন ব্যবহারকারীরা। এ ছাড়া, হ্যাশট্যাগ ‘ডেটা লিক’ শব্দটিও ওয়েইবো থেকে ব্লক হয়ে যায় রোববার বিকেলে।

“গুজবের কারখানা থেকে সত্য বিশ্লেষণ করা কঠিন।” -- টুইটারে এক পোস্টে বলেছেন বেইজিং-ভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ‘ট্রিভিয়াম চায়না’র প্রযুক্তি নীতিমালা গবেষণা প্রধান কেন্ড্রা শেফার।

শেফার বলছেন, হ্যাকারের চুরি করা ডেটা যদি দেশটির জননিরাপত্তা মন্ত্রণালয়ের হয়ে থাকে তবে ‘বেশ কয়েকটি কারণেেই’ এটি জন্য খারাপ খবর।

“খুব নিশ্চিতভাবেই ইতিহাসের সবচেয়ে বড় এবং জঘন্য ডেটা চুরির ঘটনাগুলোর একটি হতে পারে এটি।” --বলেন তিনি।

ডার্ক ওয়েবে এশিয়ার একটি দেশের একশ কোটি নাগরিকের তথ্য বিক্রির বিষয়টি শনাক্তের পর ক্রিপ্টোমুদ্রা বিনিময়ে ব্যবহারকারীর ভেরিফিকেশন পদ্ধতি আরও জোরদার হয়েছে। --সোমবার বলেছেন সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বাইন্যান্সের সিইও ঝাও চ্যাংপেং।

তিনি টুইটারে বলেছেন, সার্চইঞ্জিন ‘ইলাস্টিক সার্চ’-এ সরকারী সংস্থার স্থাপন করা একটি ‘বাগ’-এর কারণে এই তথ্য ফাঁস হতে পারে। তবে, তার এই মন্তব্য সাংহাই পুলিশের দিকে ইঙ্গিত করা কি না, সেটি নিশ্চিত হওয়া সম্ভব হয়নি।

ব্যবহারকারীদের অনলাইন ডেটার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে চীন। এর মধ্যেই হ্যাকিংয়ের এই দাবি উঠে এলো।

২০২১ সালে কয়েকটি নতুন আইন পাশ করে চীন যেখানে ব্যক্তিগত তথ্য এবং নিজস্ব সীমানার মধ্যে থাকা ডেটা পর্যাবেক্ষণের বিষয়টি উল্লেখ রয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক