ডিজিটাল মুদ্রাও অর্থমন্ত্রীর ভাবনায়

ক্রিপ্টোকারেন্সির প্রসারের পাশাপাশি এর ঝুঁকির বিষয়টি মাথায় রেখে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অধীনে ডিজিটাল মুদ্রা প্রচলনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কথা বললেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 June 2022, 10:30 AM
Updated : 9 June 2022, 12:18 PM

বৃহস্পতিবার ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাবের সময় ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে কথা বলেন তিনি।

স্টার্টআপ ও ই-কমার্স ব্যবসাকে উৎসাহ দিতে ডিজিটাল মুদ্রার দিকে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

বাজেট বক্তৃতায় তিনি বলেন, “ক্রিপ্টোকারেন্সির মতো ভার্চুয়াল মুদ্রার ঝুঁকিপূর্ণ ব্যবহার বিশ্বজুড়ে বাড়তে থাকায় এর বিকল্প হিসেবে বিশ্বের অনেক কেন্দ্রীয় ব্যাংক তাদের নিজস্ব মুদ্রার ডিজিটাল সংস্করণ চালু করার লক্ষ্যে কাজ করছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডিজিটাল মুদ্রা (সিডিবিসি) চালু করার মূল উদ্দেশ্য হলো ভার্চুয়াল লেনদেনের ক্ষেত্রে অর্থ আদান-প্রদান সহজতর করা এবং স্টার্টআপ ও ই-কমার্স ব্যবসায়কে উৎসাহ প্রদান।

“আমাদের সরকারের যুগোপযোগী পদক্ষেপের কারণে দেশে ইন্টারনেট ও ই-কমার্সের প্রসার ব্যাপক হারে বেড়েছে। এ প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে দেশে সিডিবিসি চালু করার লক্ষ্যে একটি ফিজিবিলিটি স্টাডি পরিচালনা করা হবে।”

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মূল ধারার আর্থিক ব্যবস্থার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের জন্য মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ক্রিপ্টো মুদ্রা প্রযুক্তি। এমন পরিস্থিতিতে মূলধারার অর্থনীতির জন্য হুমকি হিসেবে বিবেচিত ক্রিপ্টো মুদ্রার বিকল্প হিসেবে নিজস্ব ডিজিটাল মুদ্রা প্রচলনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে আগ্রহী এখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।

মার্কিন থিংক ট্যাংক আটলান্টিক কাউন্সিলের তথ্য বলছে, এ মুহূর্তে সিডিবিসির সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের বিভিন্ন পর্যায়ে আছে ১০৫টি দেশ।

অন্যদিকে, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে বৃহত্তম ক্রিপ্টো মুদ্রা বিটকয়েনকে অনুমোদিত মুদ্রার স্বীকৃতি দিয়েছে মধ্য আমেরিকার দেশ এল সালভাদর।

সর্বশেষ, বিটকয়েনকে বৈধ মুদ্রার স্বীকৃতি দিয়ে আলোড়ন তুলেছে মধ্য আফ্রিকার দেশ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক।

আর্থিক খাতের সংস্কারে কিছু পরিকল্পনাও বাজেটে তুলে ধরেছেন অর্থমন্ত্রী। এরমেধ্যে উল্লেখযোগ্য ব্যাংক খাতের বিষয়ে বলা হয়, সিস্টেমিক ঝুঁকি চিহ্নিত করতে অর্ধ-বার্ষিকভিত্তিতে সিস্টেমিক রিস্ক ড্যাশবোর্ড প্রণয়ন করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আর্থিক ব্যবস্থার সম্ভাব্য ঝুঁকি ও দুর্বলতা চিহ্নিতকরণে ‘ফাইন্যান্সিয়াল প্রজেকশন মডেল’ বাস্তবায়নের কথাও বলা হয়েছে বাজেট বক্তৃতায়।

আন্তঃব্যাংক লেনদেনের গতিপ্রকৃতি, ঝুঁকি এবং সংক্রমণ প্রভাব দেখতে ইন্টারব্যাংক ট্রানজেকশন ম্যাট্রিক্স বাস্তবায়ন করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আর মারাত্মক স্ট্রেসজনিত পরিস্থিতিতে ব্যাংকসমূহ যাতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে খাপ খাইয়ে নিতে পারে, তার একটি পরিকল্পনা বাংলাদেশ ব্যাংক করছে বলেও অর্থমন্ত্রী জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক