জুমের সঙ্গে ‘পাল্লা দেবে’ দেশি অ্যাপ ‘বৈঠক’

দেশীয় প্রোগ্রামারদের তৈরি করা ভিডিও কনফারেন্সিং প্ল্যাটফর্ম ‘বৈঠক’ পরীক্ষামূলকভাবে চালু করেছে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয়।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 April 2021, 09:34 AM
Updated : 25 April 2021, 09:34 AM

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন রোববার ‘বৈঠক’ অ্যাপে অনুষ্ঠিত এক আয়োজনে এ প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ব্যবহারের জন্য বৈঠক অ্যাপের প্রথম ১০টি ক্রেডেনশিয়াল হস্তান্তর করা হয়।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক অনুষ্ঠানে জানান, প্রাথমিকভাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৈঠক অ্যাপ ব্যবহার করবে। এরপর সরকারি অন্যান্য মন্ত্রণালয় ও বিভাগ এবং পরে সাধারণ মানুষের জন্য অ্যাপটি উন্মুক্ত করা হবে।

‘বৈঠক’ এর উদ্বোধন করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, “বাংলাদেশি সফটওয়্যার শিল্পের জন্য উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে এই অ্যাপ। এর মাধ্যমে আমরা জুমসহ অন্যান্য অ্যাপের ওপর নির্ভরতা কাটিয়ে উঠতে পারব।”

দেশীয় সার্ভারে সংরক্ষণের কারণে ডেটার সুরক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, “তথ্যের নিরাপত্তার বিষয়ে আমরা যেন আপস না করি। কারণ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সময় তথ্যই হয়ে উঠেছে প্রধান চালিকাশক্তি। ডেটার সুরক্ষা নিয়ে সচেতন থাকতে হবে।”

প্রতিমন্ত্রী পলক অনুষ্ঠানে বলেন, ’বৈঠক’ প্ল্যাটফর্মকে জুম, ওয়েবেক্স, টিমজের মত প্ল্যাটফর্মগুলোর সঙ্গে ‘প্রতিযোগিতায় সক্ষম’ করে গড়তে চান তারা।

”১০ জন প্রোগ্রামার দিয়ে এর কার্যক্রম শুরু হয়েছে। অচিরেই আমরা ৫০-১০০ জন প্রোগ্রামারের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করব।”

বাংলাদেশের নিজস্ব সার্ভারে হোস্টিং করার কারণে এর তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিত করা ‘সহজ হবে’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, “পাশাপাশি আমরা বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রাও সাশ্রয় করতে পারব।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “অর্থ মন্ত্রণালয়, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ইতোমধ্যে বৈঠক অ্যাপ নিয়ে আগ্রহ দেখিয়েছে। সরকারের অভ্যন্তরীণ ব্যবহারের পাশাপাশি শিগগিই এটা জনগণের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।”

পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন অনুষ্ঠানে বলেন, “প্রাথমিকভাবে আমরা অভ্যন্তরীণ সভাগুলো করতে পারব। ভবিষ্যতে আন্তঃরাষ্ট্রীয় সভাও করতে পারব, যার মাধ্যমে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বৃদ্ধি পাবে।”

আইসিটি মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতীম দেবও বক্তব্য দেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক