ধাতব চাবিহীন গাড়ির লক তার কাছে নস্যি!

যে কোনো বিলাসবহুল গাড়ির লক খুলতে পারবে এমন ডিভাইস তৈরি করেছেন এক হ্যাকার। ‘ইভানকানেক্ট’ নামের ওই হ্যাকারের ডিভাইসটির নাম ‘কিলেস রিপিটার’।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Feb 2020, 03:54 PM
Updated : 15 Feb 2020, 03:54 PM

ডিভাইসটি ‘ও্য়্যারলেস কি ফব সিস্টেম’ ব্যবহার করে চলে এবং ডিভাইসটিকে নয় হাজার ডলার মূল্যে বিক্রি করাও শুরু করেছেন ওই হ্যাকার। ঠিক কীভাবে ‘কিলেস রিপিটার’ ডিভাইসটি কাজ করে, সেটিও সাম্প্রতিক এক ভিডিওতে দেখিয়েছেন তিনি। -- খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএস-এর।

ভিডিওতে দেখা গেছে, চালকবিহীন এক গাড়ির দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি। গাড়িটি তার এক বন্ধুর বলেও জানান ওই হ্যাকার। গাড়ির কাছে গিয়ে হাতে থাকা অ্যান্টেনা সমৃদ্ধ ছোট একটি ডিভাইস দিয়ে চালক আসনের পাশে থাকা দরজাটি খুলে ফেলেন তিনি এবং ইঞ্জিনও চালু করেন।

চাইলে যে কেউ যে কোনো উদ্দেশ্যে ডিভাইসটিকে ব্যবহার করতে পারে বলেও ভিডিওতে স্বীকার করেছেন হ্যাকার ‘ইভানকানেক্ট’। শুধু যেসব বিলাসবহুল গাড়ি ২২ এবং ৪০ কিলোহার্টজের মধ্যবর্তী তরঙ্গ ব্যবহার করে, সেগুলো আনলক করা যাবে না। এসব গাড়ির মধ্যে রয়েছে মার্সেইডিজ, অডি, পোর্শে, বেন্টলি এবং রোলস রয়েসের ২০১৪ সালের পরে বাজারে আসা মডেলগুলো।

এমন প্রযুক্তি যার হাতে আছে তার পক্ষে তো গাড়ি চুরি করা খুবই সহজ! “সত্যি করে বলতে পারি, এই প্রযুক্তির সাহায্যে গাড়ি চুরি করিনি আমি। যদিও এটি করা খুবই সহজ। তারচেয়ে বরং আমি মনে করি অন্যদের কাছে এটি বিক্রি করে যদি অর্থ উপার্জন করা যায়, তাহলে হাত নোংরা করে কী লাভ।” – বলেছেন হ্যাকার ইভানকানেক্ট।

ভাইসের নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ স্যামি কামকার ইভানকানেক্টের ফুটেজটি পরীক্ষা করার পর জানান যে ‘কিলেস রিপিটার’ ডিভাইসটির প্রযুক্তি নতুন কিছু নয়। অনেক আগে থেকেই প্রযুক্তিটি পরিচিত।

“ভিডিওটি শতভাগ সত্যি কিনা সে নিশ্চয়তা দিতে পারছি না। এই ধরনের আক্রমণ কম করে হলেও ডজনখানেকের বেশি গাড়িতে আমি নিজের তৈরি হার্ডওয়্যার দিয়ে করে দেখিয়েছি। এগুলো তৈরি করা এবং কাজ করতে দেখানোটা খুবই সহজ।” – বলেন ভাইসের নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ স্যামি কামকার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক