গোপনতা প্রশ্নে অ্যাপলকে আক্রমণ ট্রাম্পের

গোপনতা প্রশ্নে অ্যাপলের সমালোচনা করে টুইট করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। টুইটে ট্রাম্প লিখেছেন, “খুনি, মাদক ব্যবসায়ী এবং অন্যান্য সহিংস কাজে সংশ্লিষ্টদের” আইফোন খুলে দিতে চায় না প্রতিষ্ঠানটি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Jan 2020, 01:37 PM
Updated : 15 Jan 2020, 01:37 PM

সোমবার মার্কিন ‘অ্যাটর্নি জেনারেল’ উইলিয়াম বার অ্যাপলের সমালোচনা করে অভিযোগ করেন, উগ্রপন্থী কার্যক্রম হিসেবে তদন্তাধীন এক গোলাগুলির ঘটনার তদন্তে সহযোগিতা করতে চাইছে না অ্যাপল। বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, হোয়াইট হাউজ ও প্রযুক্তি জায়ান্টদের মধ্যে চলমান দ্বন্দ্বের সর্বশেষটি হচ্ছে এটি।

ট্রাম্পের অভিযোগ, তার প্রশাসন অ্যাপলকে বাণিজ্য ও অন্যান্য ইসুতে সহযোগিতা করা স্বত্ত্বেও তদন্তকারীদের সহযোগিতা করতে কার্পণ্য করছে অ্যাপল। উইলিয়াম বার অ্যাপলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলার একদিন পরেই এ বিষয়ে নিজ মন্তব্য জানালেন ট্রাম্প।

নৌ ঘাঁটিতে হামলার ঘটনায় অ্যাপলকে সন্দেহভাজন আততায়ীর দুটি আইফোন খুলে দেওয়ার জন্য বলা হয়েছিল। মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেলের অভিযোগ, ‘অ্যাপল ‘সার্বিক সহযোগিতা’ করতে ব্যর্থ হয়েছে।’ এদিকে, ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছে অ্যাপল।

“হামলার ঘটনার পর আমাদের কাছে বহু অনুরোধ এসেছে। আমরা সময় মেনে, বিস্তারিতভাবে এবং এখনও সেগুলোতে প্রতিউত্তর দিচ্ছি।” – এক বিবৃতিতে বলেছে অ্যাপল।    

অতীতেও অ্যাপল ডিভাইসে প্রবেশাধিকার চেয়েছে এফবিআই, কিন্তু সেবার সব ফোনের জন্য ব্যাকডোর চেয়ে বসেছিল সংস্থাটি। বিষয়টির সঙ্গে ফোনের ও ফোন মালিকের নিরাপত্তার বিষয়টি জড়িত এমন যুক্তিতে বেঁকে বসেছিল অ্যাপল। ২০১৬ সালের ঘটনায় এক উগ্রপন্থীর আইফোনে প্রবেশাধিকার চাওয়ার পাশাপাশি ওই ব্যাকডোর চেয়েছিল এফবিআই। কিন্তু অ্যাপলের কারণে আর সুবিধা করে উঠতে পারেননি তারা। গোপনতা ও নিরাপত্তা প্রশ্নে পরে আইনি লড়াইয়েও জড়িয়ে পড়েছিল অ্যাপল ও এফবিআই।

শেষে অ্যাপলকে কোনোভাবেই রাজি না করাতে পেরে তৃতীয় পক্ষের সাহায্য নিয়ে শুধু ওই ডিভাইসটি খুলে নিয়েছিল মার্কিন আইন প্রয়োগকারী সংস্থাটি। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক