হুয়াওয়ে-কে ব্যবহারকারীদের ডেটা দিয়েছে ফেইসবুক

হুয়াওয়েসহ একাধিক চীনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ডেটা শেয়ারের চুক্তি আছে বলে নিশ্চিত করেছে মার্কিন সোশাল জায়ান্ট ফেইসবুক। চলতি বছরেও চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটিকে নিরাপত্তা হুমকি হিসেবে চিহ্নিত করেছেন মার্কিন গোয়েন্দারা।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 June 2018, 03:50 PM
Updated : 6 June 2018, 03:50 PM

ফেইসবুকের সঙ্গে এই চুক্তির ফলে চীনা প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যবহারকারীদের ডেটায় অ্যাকসেস পান। তবে সংগ্রহীত ডেটা ব্যবহারকারীদের ফোনেই রাখা হয়, সার্ভারে নয় বলে দাবি করেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যমটি, খবর বিবিসি’র।

এদিকে হুয়াওয়ে’র দাবি, ফেইসবুকের সঙ্গে হুয়াওয়ের সহযোগিতার উদ্দেশ্য ছিল ব্যবহারকারীদের দেওয়া সেবা উন্নত করা। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, “অন্যান্য সব শীর্ষ স্মার্টফোন সরবরাহকারীদের মতো, ব্যবহারকারীদের জন্য ফেইসবুকের সেবা আরও উন্নত করতে হুয়াওয়ে  ফেইসবুকের সঙ্গে কাজ করেছে।”  এক্ষেত্রে হুয়াওয়ে “কখনও ফেইসবুক ব্যবহারকারীডের ডেটা সংগ্রহ বা সংরক্ষণ করেনি” বলে দাবি তাদের। 

ইউএস সিনেট ইনটেলিজেন্স কমিটির সদস্য সিনেটর মার্ক ওয়ার্নার বলেছেন, ফেইসবুকের ডেটা অ্যাকসসের সুবিধা পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে হুয়াওয়ে’র নাম পাওয়ার বিষয়টি “স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ সৃষ্টি করে”।

মঙ্গলবার ফেইসবুক জানায়, তারা “অন্যান্য অনেক মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের মতো” হুয়াওয়ের সঙ্গে ও আরও চীনা নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তাদের সেবা ওই ফোনগুলোতে সমন্বিত করতে কাজ করেছে।

ফেইসবুকের মোবাইল অংশীদারিত্ববিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট ফ্রানসিসকো ভারেলা বলেন, হুয়াওয়ে, লেনোভো, অপ্পো আর টিসিএল-এর সঙ্গে সমন্বয় “শুরু থেকেই নিয়ন্ত্রিত ছিল” আর “আর আমরা এই প্রতিষ্ঠানগুলোর বানানো ফেইসবুক অভিজ্ঞতার অনুমোদন দিয়েছি।”

ব্যবহারকারীদের তথ্য ব্যবহার ও সংরক্ষণ নিয়ে ইতোমধ্যেই কড়া চাপ আর নজরদারিতে আছে ফেইসবুক। কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা কেলেঙ্করির চাপ সামলে উঠার আগেই এর বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ তুলল মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস। দৈনিকটির আলোচিত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, আগের দশ বছরে অ্যাপল, অ্যামাজন, মাইক্রোসফট এবং স্যামসাংসহ অন্তত ৬০টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তথ্য শেয়ারের চুক্তি করেছে ফেইসবুক। এই চুক্তির মাধ্যমে স্পষ্ট সম্মতি ছাড়াই প্রতিষ্ঠানগুলোকে ফেইসবুক গ্রাহকের সম্পর্ক, রাজনৈতিক পক্ষপাত, শিক্ষাগত যোগ্যতা, ধর্ম এবং আসন্ন ঘটনাবলীবিষয়ক তথ্য ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের অনুমতি ছাড়াই তাদের বন্ধুদের ডেটাতেও প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রবেশাধিকার দিয়েছে। এমনকি বাইরের কারও সঙ্গে এ ধরনের তথ্য আর শেয়ার না করার ঘোষণা দেওয়ার পরও এ কাজ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় প্রতিবেদনে।

এই অভিযোগগুলো তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যাখ্যান করে ফেইসবুক।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক