হ্যাকিংয়ের ব্যবসা করতো সাইটটি…

বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বিশ্বজুড়ে ৪০ লাখেরও বেশি সাইবার আক্রমণ চালানোর অভিযোগ থাকা এক ওয়েবসাইট।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 April 2018, 05:58 PM
Updated : 25 April 2018, 05:58 PM

ওয়েবস্ট্রেসার ডটঅর্গ নামের এই ওয়েবসাইট থেকে চালানো সাইবার আক্রমণের শিকার হয়েছিল যুক্তরাজ্যের ব্যাংকগুলোও। বড় এক আন্তর্জান্তিক তদন্তের মধ্যে এই ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় বিবিসি’র প্রতিবেদনে।

এই ওয়েবসাইট ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলোতে আক্রমণে জন্য অপরাধীদের প্লাটফর্ম বানিয়ে দিত বলে অভিযোগ রয়েছে।

২০১৭ সালে যুক্তরাজ্যের বড় ব্যাংকগুলোকে আক্রমণের জন্য এক ব্রিটিশ সন্দেহভাজন ব্যক্তি এই সাইট ব্যবহার করেছিলেন। ওই সাইবার আক্রমণে লাখ লাখ পাউন্ড ক্ষতি হয়। এই সাইট পরিচালনার পেছনে থাকা ছয় সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। যুক্তরাজ্য, নেদারল্যান্ডস আর বিভিন্ন জায়গায় এ কার্যক্রমে জড়িত থাকা কম্পিউটারগুলো আটক করা হয়েছে।

তদন্তকারীরা বলেছেন, এই চক্র প্রতিটি সাইবার আক্রমণের জন্য ১৪.৯৯ ডলার করে নিত। এর মানে হচ্ছে যে কোনো ওয়েব সেবাকে আক্রমণ করতে চাওয়া যে কেউ এই অর্থের বিনিময়ে শনাক্ত হওয়ার খুব কম ঝুঁকি নিয়েই আক্রমণ চালাতে পারতেন। এক্ষেত্রে ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনায়েল অফ সার্ভিসেস বা ডিডিওএস আক্রমঅণ চালানোর সুযোগ দেওয়া হতো। এই আক্রমণে লক্ষ্য হিসেবে নেওয়া ওয়েবসাইটে প্রবেশের জন্য প্রচুর ভুয়া ডেটা পাঠিয়ে ওয়েবসাইট বিকল করে দেওয়া হয়।

প্রতিদ্বন্দ্বী ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলোতে গুপ্তচরবৃত্তি চালানো বা সেগুলোকে মুক্তিপণের মুখে আটকানোর জন্য এই প্লাটফর্ম ব্যবহার করতো এর গ্রাহকরা।

এতে ঠিক কোন জায়গা থেকে আক্রমণ চালানো হয়েছে আর কীভাবে তা হলো সে তথ্য শনাক্তে অনেক বেশি চেষ্টা চালাতে হয়।   

শেষ দুই দিনে এই চক্রের সাত সন্দেহভাজনকে নেদারল্যান্ডস, সার্বিয়া, ক্রোয়েশিতা আর কানাডা থেকে আটক করা হয়। এই অভিযানে পুলিশ স্কটল্যান্ড, ইউরোপল, যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ আর যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ক্রাইম এজেন্সি জড়িত ছিল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক