ক্রিপ্টোকারেন্সি নিষিদ্ধ করলো ইরান

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেনে ইরানের ব্যাংকগুলোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 April 2018, 03:30 PM
Updated : 23 April 2018, 03:30 PM

এইপ্রযুক্তি অবৈধভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে এমন উদ্বেগ থেকেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছেবলে উল্লেখ করা হয়েছে বিবিসি’র প্রতিবেদনে।

ইরানেরকেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়, বিটকয়েন “মুদ্রাপাচার ও আর্থিক সন্ত্রাসী কার্যক্রমেরমাধ্যমে পরিণত হতে পারে”। সেই সঙ্গে এটি “অপরাধীদের অর্থ লেনদেনের মাধ্যম হতে পারে”বলেও উল্লেখ করা হয়।

চলতিবছর এপ্রিলের শুরুতে ইরানের মুদ্রা রিয়াল-এর মূল্য সর্বকালের সর্বনিম্ন পর্যায়ে ঠেকে।

দেশটিতেএখন ব্যাংক, ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান আর মুদ্রা বিনিময় কেন্দ্রগুলোকে ডিজিটাল মুদ্রার যেকোনো ধরনের কেনাবেচা পরিহার করতে হবে।

ব্যাংকখাত আর আন্তর্জাতিক অনুমোদন নিয়ে থাকা সমস্যাগুলো কাটাতে ইরানের জন্য ক্রিপ্টোকারেন্সি-কেএকটি উপায় হিসেবে দেখছিলেন দেশটির কেউ কেউ। তাদের জন্য নতুন এই পদক্ষেপ বড় ধাক্কা,এমনটাই বলা হয়েছে ব্রিটিশ সংবাধ্যমটির প্রতিবেদনে। 

চলতিবছর ফেব্রুয়ারিতে দেশটির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী মোহাম্মদ- জাভেদ আজারি জাহরোমিইরানের নিজস্ব ভার্চুয়াল মুদ্রা তৈরির পরিকল্পনা নিয়ে একটি ঘোষণা দিয়েছিলেন। ওই প্রকল্পেইরানের সাইবার নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষের সমর্থনও ছিল। সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রিত হলে ভার্চুয়ালমুদ্রাকে সে সময় সমর্থনের কথা জানিয়েছিল সংস্থাটি।

কিন্তুএতে সায় দেয়নি ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ওই সময় ব্যাংকটি রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমকে বলে,ক্রিপ্টোকারেন্সি’র “বেপরোয়া উঠানামা” আর “পিরামিড স্কিম” ভার্চুয়াল মুদ্রা বাজারকে“অনির্ভরযোগ্য ও ঝুঁকিপূর্ণ” করে তুলেছে। 

চলতিমাসের শুরুতে ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনাবেচা একই ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয়ব্যাংকও।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক