ভার্চুয়াল মুদ্রা থেকে মুখ ফেরাচ্ছে ভারত

নিজেদের লেনদেন ব্যবস্থায় ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রা অবৈধ- এই বিষয়টি নিশ্চিত করার পরিকল্পনা করছে ভারত। সেইসঙ্গে ‘ক্রিপ্টো সম্পদ’-এর নিয়ন্ত্রণহীন  বিনিময় পর্যবেক্ষণে নিয়ন্ত্রকও নিয়োগ দিয়েছে দেশটি- সোমবার ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয়র এক কর্মকর্তা এ কথা বলেন।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2018, 03:55 PM
Updated : 6 Feb 2018, 03:55 PM

ক্রিপ্টোকারেন্সিনিয়ে থাকা বিষয়গুলো যাচাইয়ে ভারত সরকারের গঠন করা একটি প্যানেল ৩১ মার্চ শেষ হতে যাওয়াঅর্থ বছরের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে বলে আশা করা হচ্ছে- মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসি-কেএ তথ্য জানিয়েছেন দেশটির অর্থ সচিব এস. সি. গ্র্যাগ। তিনি বলেন, “লেনদেন ব্যবস্থা হিসেবেএকে (ক্রিপ্টোকারেন্সি) অবৈধ করতে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।”

সরকারগঠিত ওই প্যানেলের নেতৃত্ব গ্রেগ-ই দিচ্ছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে রয়টার্স-এর প্রতিবেদনে।তিনি বলেন, “আমরা আশা করি চলতি অর্থ বছরের মধ্যে কমিটি তাদের সুপারিশগুলো চূড়ান্ত করবে…নিশ্চিতভাবে এক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রক রাখা হবে।”  

ভারতসরকার টেন্ডার-এর জন্য ক্রিপ্টোকারেন্সিকে বৈধ বিবেচনা করে না আর  লেনদেন ব্যবস্থার অংশ হিসেবে কোনো অবৈধ আর্থিক কার্যক্রমেক্রিপ্টো সম্পদের ব্যবহার বন্ধ করবে- এই খবর প্রকাশের আগের সপ্তাহে বার্ষিক বাজেট উপস্থাপনেরসময় পার্লামেন্টে এ কথা বলেন ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি।

ডিজিটালমুদ্রাখাতে বিনিয়োগ-এর বিরুদ্ধে ভারত সরকার একাধিকবার সতর্কর্তা জারি করেছে। কিন্তুদেশটিতে এই খাতে প্রতি মাসে প্রায় দুই লাখ ব্যবহারকারী যুক্ত হচ্ছে বলে প্রতিবেদনেজানানো হয়। 

ব্লকচেইন অ্যান্ড ক্রিপ্টোকারেন্সি কমিটি’র প্রেসিডেন্ট আজিত খুরানা বলেন, ক্রিপ্টোকারেন্সিবিনিময় কেন্দ্রগুলোকে নীতিমালার আওতায় আনার সিদ্ধান্তটি ভালো খবর।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক