শত কোটির আয়ে পোকিমন গো

আয়ের হিসেবে শত কোটি মার্কিন ডলারের কোটায় পৌঁছেছে অগমেন্টেড রিয়ালিটি গেইম পোকিমন গো।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Feb 2017, 12:48 PM
Updated : 2 Feb 2017, 12:48 PM

আগের বছর উন্মোচিত এই গেইমটি ইতোমধ্যেই ডাউনলোডের রেকর্ড গড়েছে। আর যে কোনোঅ্যাপের চেয়ে দ্রুত ৫০ কোটি মার্কিন ডলার আয়ের রেকর্ডও এই রয়েছে এই গেইমের। অ্যাপ বিশ্লেষণাপ্রতিষ্ঠান সেন্সর টাওয়ার-এর তথ্য অনুযায়ী এবার গেইমটির আয় দাঁড়িয়েছে শত কোটি মার্কিনডলারে, জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট টেকক্রাঞ্চ।

সম্প্রতি আরেক অ্যাপ বিশ্লেষণা প্রতিষ্ঠান অ্যাপ অ্যানি জানায় আগের বছর আইওএসএবং অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপারদের আয় হয়েছে সাড়ে তিন হাজার কোটি মার্কিন ডলার।

উন্মোচনের পর ছয় মাসেই শত কোটি মার্কিন ডলার আয় করেছে পোকিমন গো। বিশ্বেরসবচয়ে বড় গেইমিং বাজার চীনে গেইমটি উন্মোচনের অনুমতি না দেওয়ার পরও এই আয়ে পৌঁছেছেএটি।

পোকিমন গো ছাড়া আরেক গেইম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সুপারসেল-এর তৈরি ‘ক্ল্যাশরয়াল’-এর আয়ের হিসাব দিয়েছে সেন্সর টাওয়ার। সাত মাসে এই গেইমটির আয় ৫৫ কোটি মার্কিনডলার।

সেন্সর টাওয়ার-এর মতে আগের তুলনায় আয় কমেছে পোকিমন গো-এর। বর্তমানে প্রতিদিনগেইমটি থেকে আয় হচ্ছে ১৫ থেকে ২৫ লাখ মার্কিন ডলার। আগে যার পরিমাণ ছিল রেকর্ড এক কোটিআশি লাখ ডলার।

'ট্রেজার হান্ট' ঘরানার অগমেন্টেড রিয়ালিটি গেইম 'পোকিমন গো'। এর বিশেষত্বহল, এতে ভার্চুয়াল আর বাস্তব জগতের মধ্যে সমন্বয় আনা হয়েছে। কেবল ঘরে বসে খেলার মতোনয়, খেলোয়াড়কে বাইরে আনাই ছিল এই গেইমের মূল লক্ষ্য।

একটি স্মার্টফোনে গেইমটি খেলার সময়ে 'পোকিমন গো'  খেলোয়াড় থেকে পোকিমন বা প্রতিদ্বন্দ্বী দল কত দূরেরয়েছে তার ক্রমাগত নোটিফিকেশন দিতে থাকে।

খেলোয়াড়রা চাইলে অপশনে গিয়ে তাদের আশপাশের পরিবেশ স্ক্যান করে দেখতে পারেন,কোথাও পোকিমন রয়েছে কিনা। ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলে হয়ত মোবাইলের পর্দায় পোকিমনের দেখা পেয়েওযেতে পারেন হঠাৎ। আর চাইলে 'পোকিমন বল' ছুঁড়ে পোকিমন কে বন্দি করে গেইমার তা যোগ করেফেলতে পারেন নিজস্ব সংগ্রহের তালিকায়।

সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ায় পোকিমনগো উন্মোচন করেছে এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নিনটেনডো। গেইমের বাজারেবর্তমানে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক